পাইকগাছা আলোকিত পৌরসভার হালচাল- ৪ পৌরসভার ফুটপাত দখল করে চালিয়ে যাচ্ছে রমরমা ব্যবসা

ক্রাইমবার্তা রিপোট: জি,এ, গফুর, পাইকগাছা  পাইকগাছা আলোকিত পৌরসভা নামে খ্যাত এ পৌরসভাটি চলছে যত্রতত্রভাবে। একের পর এক ফুটপাত দখল করে চালিয়ে যাচ্ছে রমরমা ব্যবসা। দেখার কেউ নেই। কর্তৃপক্ষ নিরব। স্বচ্ছ পৌরসভার দাবী জানিয়েছেন পৌরবাসী। 18
জানা যায়, ১৯৯৭ সালের ১ ফেব্র“য়ারি গঠিত পাইকগাছা পৌর সদরের হাট বাজারের রাস্তার উপর ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা যত্রতত্রভাবে দখল করে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। পৌর সদরের হাট বাজারের ভিতর দিয়ে ৮-১০টি চলাচলের রাস্তা রয়েছে। প্রতিনিয়ত হাজার হাজার ক্রেতা ও বিক্রেতারা উক্ত রাস্তা দিয়ে চলাচল করে থাকে। কিন্তু ফুটপাত দখল করে দোকান বসানোর ফলে বিড়ম্বনার শিকারে পরিণত হচ্ছে ক্রেতা সাধারণ। অনেকে স্ব-পরিবারে বাজারে আসলেও ফুটপাত দখলের কারণে নির্বিঘেœ চলাচল করতে পারছে না। আবার মাল বোঝাই ভ্যানগাড়ী বাজার পর্যন্ত পৌছাতে পারে না। পৌর সদরের ত্রিমোহনী হতে নদী পর্যন্ত জন চলাচলের প্রধান উপায় হলেও উক্ত রাস্তার দু’পাশে দখল করে রেখেছে কমপক্ষে ২০-৩০টি ছোট ছোট দোকান। জানা যায়, বড় দোকানদাররা এদের নিকট থেকে মাসিক ও বাৎসরিক ভাড়া আদায় পূর্বক তাদের দোকানের সামনে ফুটপাতে বসিয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেক ফুটপাত ব্যবসায়ীরা জানান, আমাদের পাশের ঘর মালিককে মোটা অংকের টাকা দিয়ে থাকতে হয়। ব্যবসায়ীরা আরো জানান, আমরা যে মালিকের ঘরের সামনে আছি সে মালিককে মাসিক চুক্তিতে টাকা দিয়ে ব্যবসা করছি। ‘ফুটপাত সরকারের, ভাড়া আদায় করছে দোকানদার।’ বিষয়টি অবাস্তব হলেও সত্য। করিম নামের জনৈক ক্রেতা বলেন, ফুটপাত দখলের কারণে বাজার করতে আসা অত্যন্ত কষ্টকর ব্যাপার। বাজারের মাছ মার্কেট, মুরগী মার্কেট, স্বর্ণপট্টি, কাঁচা বাজার সহ সকল মার্কেটের রাস্তাগুলি অবৈধভাবে গড়ে উঠেছে শতশত ক্ষুদ্র দোকান। ইতিপূর্বে কয়েকবার ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে দোকানগুলো উচ্ছেদ করলেও পরবর্তীতে আবার বেদখল হয়ে যায়। ফলে জনদুর্ভোগ বেড়েছে। পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর জানান, প্রশাসনের সহযোগিতায় ইতিপূর্বে উচ্ছেদ করেছি। আবারো অচিরেই উচ্ছেদ করা হবে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ নাজমুল হক জানান, বিষয়টি পৌরসভার। মেয়র মহোদয় আইনের সহায়তা চাইলে আমরা ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে উচ্ছেদ করব।

পাইকগাছায় নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় পিতা পুত্র গ্রেফতার
পাইকগাছা প্রতিনিধি ॥
পাইকগাছা নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় পুলিশ পিতা-পুত্রকে গ্রেপ্তার করেছে। ঘটনাটি উপজেলার বিষ্ণুপুর গ্রামের। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, মৃত রম্বেল শেখের পুত্র আরাফাত শেখ ও তার পুত্র আছাদুল শেখ। থানায় মামলা নং- ১০।
মামলা ও ভূক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ধামরাইল গ্রামের মিনারুল ইসলামের স্বামী পরিত্যাক্তা কন্যা মিনারা খাতুনের সহিত বিষ্ণুপুর গ্রামের আরাফাত শেখের পুত্র আছাদুলের প্রেমজ সম্পর্ক গড়ে উঠে। দীর্ঘ ২ বছর ধরে তাদের প্রেম অন্তরঙ্গ প্রেমে রূপ নেয়। ফলে মিনারা খাতুন অন্তঃস্বত্ত্বা হয়ে পড়ে এবং ৪ মাস পূর্বে এক কন্যা সন্তানের জন্ম দেয়। প্রথম থেকে মিনারা আছাদুলকে বিয়ের জন্য চাপ প্রয়োগ করলে সে বিভিন্ন ধরণের তালবাহানা করতে থাকে। এক পর্যায়ে আছাদুল গোপনে গত ৯ নভেম্বর আশাশুনি থানার শ্রীধরপুর গ্রামের আনিছুর রহমানের কন্যাকে বিয়ে করে। এ ঘটনা জানতে পেরে মিনারা খাতুন বিয়ের প্রলোভন, সন্তানের দ্বায়ভার ও ধর্ষণের অভিযোগ তুলে পাইকগাছা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে আসাদুলসহ ৩ জনের নামে মামলা দায়ের করে। যার নং- ১০। ওসি (তদন্ত) জাবীদ হাসান রবিবার সকালে অভিযান চালিয়ে আছাদুল ও তার পিতা আরাফাতকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে।

পাইকগাছায় তারেক রহমানের ৫১তম জন্মবার্ষিকী পালিত
পাইকগাছা প্রতিনিধি ॥
বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ জাতীয়বাদী দল পাইকগাছা উপজেলা ও পৌর শাখার উদ্যোগে রবিবার সকাল ১০:৩০ মিনিটে দলীয় কার্যালয়ে কেক কাটা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পৌর আহবায়ক এ্যাডঃ জি,এম, আব্দুস সাত্তার। প্রধান অতিথি ছিলেন, উপজেলা বিএনপির আহবায়ক ডাঃ মোঃ আব্দুল মজিদ। বক্তব্য রাখেন, সাবেক চেয়ারম্যান শাহাদাত হোসেন ডাবলু, এস,এম, ইমদাদুল হক, চেয়ারম্যান এস,এম, এনামুল হক, সেলিম রেজা লাকী, আব্দুল মজিদ গোলদার, কাউন্সিলর সেলিম নেওয়াজ, শেখ ইমামুল ইসলাম, আতাউর রহমান, তুষার কান্তি মন্ডল, মাসুম বিল্লাহ কাগজী, মাস্টার বাবর আলী, আবুল হোসেন, সরদার তোফাজ্জেল হোসেন, আনারুল কাদির, আসাদুজ্জামান ময়না, আবুল বাশার বাচ্চু, সাত্তার মোড়ল, সরদার ফারুক আহমেদ, মতলেব গাজী, চায়েব আলী সানা, সাজ্জাদ আহমেদ মানিক, মোহর আলী, এস,এম, টুকু, মোঃ আবু হানিফ, সায়েদ আলী বাবলা, মশিউর রহমান মিলন, গাজী কামরুল ইসলাম, আরেফিন বিশ্বাস, মফিজুল ইসলাম টাকু, মোঃ আব্দুল্লাহ, মোঃ মুছা, আসাদুজ্জামান খোকন, মোঃ ইকরামুল, রাজিব নেওয়াজ, দিপংকর বাবু, ইস্রাফিল আহমেদ, সুজায়েত আহমেদ, মুনসুর গাজী, আসাদুজ্জামান কেরামত, শেখ ইবরাহিম, ইউনুছ মোল্লা, হাতেম সরদার, মোঃ রানা মোঃ জিনারুল, মোঃ জিবারুল, মোঃ ফসিয়ার, মোঃ নুরুজ্জামান, আলতাপ গাজী, মোঃ আব্দুর রশিদ, হযরত আলী, জামাল বিশ্বাস, মোঃ ডালিম, মোঃ জুলফিকার, মোঃ সাবেরী, মোঃ সুমন, বাবুল সরদার, মোঃ হালিম, মোঃ রেজাউল, মোঃ কবির, মোঃ মোমিন, মোঃ কবির, ইয়াউর রহমান, মোঃ তৈয়েবুর, মোঃ সাইফুল ইসলাম, মোঃ রাসেল, মোঃ মুরশিদ, গোলদার নূর আলী, মোঃ রিপন, মোঃ আরিফ, মোঃ সালাম, শোয়েবুর রহমান বাবু, মোঃ আমানুর, মোঃ মোমিন, মোঃ মনি, মোঃ মোস্তাকিম, মোঃ তাজউদ্দীন।

Please follow and like us:
Facebook Comments