চাটুকারদের থেকে খালেদা জিয়াকে সতর্ক থাকার আহবান গয়েশ্বরের

ক্রাইমবার্তা রিপোট:বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উদ্দেশে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, যারা সরকারের এজেন্ট হিসেবে কাজ করে দলে তাদের কদর যদি বেড়ে যায় তাহলে প্রকৃত নেতাকর্মীদেরকে দুর্দিনে কাছে পাওয়া মুশকিল হয়ে যাবে।

আজ বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয়বাদী কৃষক দল আয়োজিত দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। চাটুকারদের কাছ থেকে রাজনীতিবিদরা কখনো রেহাই পায় না উল্লেখ করে তিনি বলেন, দুর্দিনে যারা আপনাকে (খালেদা জিয়া) ফেলে যাবে না তাদের হাত পা দুর্বল করে দিবেন না। যারা সুবিধাবাদী তাদের কথা শুনলে ক্ষতি হবে। একটু সতর্ক থাকেন। জীবন অনেক কিছু শেষ হয়ে গেছে।
তিনি বলেন, দলে এমন কিছু রাজনীতিবিদ আছেন যারা সরকারের সঙ্গেও যোগাযোগ করে আবার বিএনপিকেও খুশি রাখে। উভয় দলের সাথে তাদের সম্পর্ক। এসব শুনি তবে কোনো তথ্য নাই। সুবিধা নিতে গিয়ে যারা ভান্ডার ভরছে তাদের ভান্ডার যাতে খালি না হয় তাই তারা দুই কূলই রক্ষা করছে।
ষড়যন্ত্রের নির্বাচনে পা দিলে বিএনপির সামনে দুর্দিন উল্লেখ করে তিনি বলেন, ভারত শেখ হাসিনাকে বাংলাদেশে আমৃত্যু প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চায়। আমাদের রাজনীতিবিদরাও কিছু আছে যারা দুদিকে সম্পর্ক বজায় রাখেন। ২০১৯ সালের আগে নির্বাচন হবে না। তবে মাঝখানে যদি সুযোগ পায় রিনিউ করলে করলে দোষের কি। পাশের দেশে গণতন্ত্র আছে অথচ আমাদের দেশে গণতন্ত্র থাকুক এটা তারা চায় না। তিনি বলেন, এই নির্বাচন খালেদা জিয়াকে রেখেও হতে পারে আর যদি তিনি আপোষহীন হন তাহলে তাকে বাদ দিয়েও হতে পারে। তাই আমি আহ্বান জানাবো খালেদা জিয়া যেন এসব চাটুকার মোসাহেবিদের থেকে সতর্ক থাকেন।গয়েশ্বর বলেন, সকল রাজনৈতিক দলের মধ্যে এক ধরনের চাটুকার আছে যারা ভুল বুঝে অপপ্রচার চালান। ঘরে কথা বললে চাটুকার মহাশয়রা অসন্তুষ্ট হন। সুবিধাবাদী এত তৎপর যে তারা দেশে বিদেশে অবারিত সুবিধা নেন।যুবদলের সাবেক এই সভাপতি বলেন, আন্দোলন কেমনে হবে সবাই ঘুরে পদের তদবীরে। ঐক্যবদ্ধ হতে পারলে শত্রু শিবিরে ধাক্কা দিতে পারবো।
বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদুর সভাপতিতে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, আতাউর রহমান ঢালী, যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ।

Please follow and like us:
Facebook Comments