হরতালে সমর্থন : সরকার প্রভুদের থেকে ফিরবে না : রিজভী

ক্রাইমবার্তা রিপোট:সরকার প্রভুদের থেকে কখনই ফিরবে না মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। বাঘেরহাটে অর্থমন্ত্রী এবং রাজধানীর ডিআরইউ মিলনায়তনে খনিজ প্রতিমন্ত্রীর সুন্দরবন নিয়ে দেয়া বক্তব্যের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার যে কথা দিয়েছেন তাদের প্রভুদের কাছ তা থেকে তারা কখনই ফিরে আসবে না। সরকার প্রধান দেশকে দোজখে পরিনত করতে চায়। দেশের স্বার্থে, জনগণের কথা ভেবে সরকারের উচিত এই প্রকল্প থেকে সরে আসা।তিনি আগামী ২৬ জানুয়ারি রামপালে বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের প্রতিবাদে তেল, গ্যাস, খনিজ সম্পদ রক্ষা কমিটির ডাকা হরতালে পূর্ণ সমর্থন জানান।

আজ রোববার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, দেশের গুরুত্বপূর্ণ সম্পদ সুন্দরবন রক্ষায় বিএনপির সমর্থন সব সময় ছিল আর থাকবে। ২৬ জানুয়ারি রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র বিরোধী হরতালকে সমর্থন এবং সার্থক করার আহ্বান জানায়।

সুন্দরবন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া বক্তব্যের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিশ্ব নেতাদের সামনে সুন্দরবন নিয়ে যে তথ্য দিয়েছে তা বানোয়াট, অসত্য। তিনি (প্রধানমন্ত্রী) এতো বড় বিজ্ঞানী হয়েছেন যে দেশ বিদেশের এতো বিশেষজ্ঞের মতামতকে অগ্রহ্য করে প্রভুদের কাছে দেয়া কথা বাস্তবায়ন করছে। অবৈধভাবে ক্ষমতা আসলে যা হয়। সরকার ইচ্ছাকৃতভাবে সুন্দরবনকে ধ্বংস করতে চায়।

তিনি আরো বলেন, সন্দরবন ধ্বংস করে রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন হলে শুধুমাত্র মুনাফাখোর আর সুবিধাভোগিদের লাভ হবে। সারা দেশের এবং জনগণের ধ্বংস হবে। এতো কিছু জেনে শুনেও সরকার নিজেদের সিদ্ধান্তকে বাস্তবায়ন করতে চায়। প্রভুদের কাছে দেয়া ওয়াদা বাস্তবায়ন করতে গেলে শ্লোগানে মিছিলে উদ্বেল হয়ে সকল বাধা অতি্ক্রম করে দেশপ্রেমিক জনগণ আরেকটি মুক্তিযুদ্ধ শরু করবে।

জিয়াউর রহমানের ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর মৃত্যুবার্ষিকীকে কেন্দ্র করে ২৪ জানুয়ারি সকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কার্যালয়ের নিচে মিলাদ মাহফিল। বিকালে খালেদা জিয়া বনানিস্থ কবরস্থানে যাবেন এবং একই দিনে গরিব মানুষদের মাঝে খাবার ও কাপড় বিতরণ করা হবে।

Facebook Comments
Please follow and like us: