পল্টন থানার মামলায়ও জামিন পেলেন ছাত্রলীগের দুই নেতা

ক্রাইমবার্তা রিপোট:ঢাকার গুলিস্তানে ফুটপাতের হকারদের উচ্ছেদকালে অস্ত্র উঁচিয়ে গুলি ছোড়ার ঘটনায় পল্টন থানায় করা মামলায় ছাত্রলীগের দুই বহিষ্কৃত নেতা এবার আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন। এর আগে একই ঘটনায় শাহবাগ থানার আরেকটি মামলায় তাঁরা জামিন পান।

আজ বৃহস্পতিবার ঢাকার মহানগর হাকিম আবু সাঈদ শুনানি শেষে এ আদেশ দেন। গতকাল বুধবার এ মামলায় ছাত্রলীগের দুই নেতার পাঁচ দিনের রিমান্ড চাওয়া হলে রিমান্ড নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।

জামিনপ্রাপ্ত দুই নেতা হলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. সাব্বির হোসেন ও ওয়ারী থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আশিকুর রহমান। দুজনই বর্তমানে সংগঠন থেকে বহিষ্কৃত।

এর আগে গত বছরের ১৭ নভেম্বর শাহাবাগ থানার হত্যা চেষ্টা মামলায় ছাত্রলীগের এ দুই নেতা অত্যন্ত গোপনীয়ভাবে আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন নেন। এরপর ৪ ডিসেম্বর তাঁদের সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

নেতারা রিমান্ড শুনানির সময় আদালতে হাজির না হওয়ায় জামিন বাতিল করে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির নির্দেশ দেন আদালত। পরে তারা গত ৯ ফেব্রুয়ারি আদালতে আত্মসমর্পণ করলে বিচারক জামিন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। গত সোমবার এ দুই নেতাকে জামিন দেন ঢাকার মহানগর হাকিম নুরুন্নাহার ইয়াসমিন।

এজাহার থেকে জানা যায়, ২০১৬ সালের ২৭ অক্টোবর গুলিস্তান পাতাল মার্কেট এলাকার ফুটপাত থেকে অবৈধ দোকান উচ্ছেদের সময় হকারদের সঙ্গে সিটি করপোরেশনের কর্মচারীদের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়। এ সময় ছাত্রলীগের তৎকালীন দুই নেতা অস্ত্র উঁচিয়ে ফাঁকা গুলি ছুড়ে আতঙ্ক সৃষ্টির চেষ্টা করেন।

এ ঘটনায় শাহবাগ ও পল্টন থানায় দুটি হত্যাচেষ্টা মামলা করা হয়। মামলায় ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. সাব্বির হোসেন ও ওয়ারী থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আশিকুর রহমানসহ অজ্ঞাতপরিচয় ৫০-৬০ জনকে আসামি করা হয়। গুলি ছোড়ার ঘটনা প্রকাশের পর সংগঠন থেকে এঁদের বহিষ্কার করা হয়।

Please follow and like us:
Facebook Comments