মেহেরপুরে পুলিশের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৪

ক্রাইমবার্তা রিপোট:মেহেরপুরে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে চারজন নিহত হয়েছেন। সোমবার গভীর রাতে সদর উপজেলার নুরপুর মোড়ে এ ঘটনা ঘটেছে।

নিহতরা হলেন উপজেলার সোনাপুর গ্রামের সাদ্দাম হোসেন (২৫), রমেশ (২৪), সোহাগ (২৭) ও কানন (২৫)।  এরা সোনাপুর গ্রামের জোড়া খুন মামলার আসাসি বলে ধারণা করছে পুলিশ।

এ ঘটনায় সহকারি পুলিশ সুপার আহসান হাবীব সহ সাত পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জানান, রাত আড়াইটার দিকে কিছু সন্ত্রাসীকে ধাওয়া করে পুলিশের একটি দল। নুরপুর মোড়ে পৌঁছালে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে সন্ত্রাসীরা। এ সময় উভয়ের মধ্যে গুলি বিনিময় হয়। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় চার সন্ত্রাসী। এ সময় সহকারি পুলিশ সুপার আহসান হাবীব, এস আই তারিক আজিজ, এস আই রফিকুল ইসলাম, পুলিশ সদস্য আব্দুল হান্নান, আব্দুল ওহাব, মিথান সরকার ও শহিদুল ইসলাম আহত হন। তাদের মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

নিহতরা সোনাপুর গ্রামের মজিদ ও আসাদুল হত্যার সাথে জড়িত বলে ধারণা করছেন তিনি। লাশ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আবু এহসান রাজু জানান, রাত পৌনে ৪টার দিকে গুলিবিদ্ধ চারজনকে হাসপাতালে নিয়ে আসে পুলিশ। হাসপাতালে আসার আগেই তাদের মৃত্যু হয়েছে। লাশের ময়নাতদন্ত শেষে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে।

উল্লেখ্য, গত ৫ মার্চ রাতে সদর উপজেলার সোনাপুর গ্রামের দুই ব্যবসায়ী আব্দুল মজিদ (৫৫) এবং আাসাদুল ইসলামকে (৫০) অপহরণ করে গলাকেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। ১০/১২ জনের অস্ত্রধারী একটি দল গ্রামের একটি চায়ের দোকান থেকে রাত পৌনে ১১টার দিকে তাদের অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে যায়। এরপর রাতেই তাদের গলাকেটে হত্যা করা হয়। বন্দুকযুদ্ধে নিহতরা এ হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত বলে ধারণা পুলিশ ও এলাকাবাসীর।

Please follow and like us:
Facebook Comments