‘কাউয়া নয়, আরো বড় কিছু ঢুকতে পারে’

ক্রাইমবার্তা রিপোট:জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) সভাপতি শফিউল আলম প্রধান বলেছেন, জঙ্গিবাদে কারা অর্থ ও ম“ দেয় প্রধানমন্ত্রীর ডানে-বামে ও পিছনে তাকালেই তা বুঝবেন। তিনি বলেন, কোথা থেকে অস্ত্র, অর্থ ও বোমা আসে, অপারেশন শেষে কেন কথিত জঙ্গিরা পেয়ারে হিন্দুস্থানের নিরাপদ সেল্টারে আশ্রয় নেয় তা খতিয়ে দেখতে তিনি প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আহ্বান জানান।12
৭১ সালের ২৩ মার্চ পরাধীন বাংলার দিনাজপুরে স্বাধীনতার পতাকা উত্তোলন দিবস পালন উপলক্ষে বৃহস্পতিবার জাগপা উদযাপন কমিটি আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
প্রসঙ্গত স্বাধীন বাংলা কেন্দ্রীয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের নির্দেশনায় ছাত্রলীগের তদানীন্তন কেন্দ্রীয় শিক্ষা ও পাঠচক্র সম্পাদক শফিউল আলম প্রধান দিনাজপুরে স্বাধীনতার পতাকা উত্তোলন করেন।
শফিউল আলম বলেন, শেখ হাসিনা যাই বলুন ও ভাবুন না কেন দিল্লির মাদারীর খেল এখন তিনি জীবন দিয়ে বুঝতে পারছেন। হিন্দুস্থান কখনো চায়নি বাংলাদেশ মাথা উঁচু করে দাঁড়াক। বিভাজন-বিভক্তি ও অস্থিরতার নামে জাতিকে টুকরো টুকরো করা হয়েছে। দুজন রাষ্ট্রপতি নিহত হলেন। বিভক্তির খেলায় ৩০ হাজার মুক্তিযোদ্ধা ও দেশপ্রেমিক প্রাণ হারালেন। ৫ জানুয়ারির ভোটারবিহীন নির্বাচনের পর সবকিছু দিয়েও আজো তিস্তার পানির নিশ্চয়তা নাই। এখন দেশপ্রেমিক জাতীয় সেনাবাহিনীকে শেষ করার জন্য সামরিক চুক্তির নামে গোলামীর চুক্তির পায়তারা হচ্ছে। তিনি হুঁশিয়ার করে দিয়ে বলেন, আগুন নিয়ে খেলবেন না, বাঘের লেজ দিয়ে কান চুলকাবার চেষ্টা হলে শুধু কাউয়া নয় অনেক বড় কিছু ঢুকে যেতে পারে।
জাগপা পতাকা দিবস উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক, জাগপার সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা খন্দকার লুৎফর রহমানের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সম্পাদক আসাদুর রহমান খান এর পরিচালনায় আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জাগপার কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি মাস্টার এম.এ মান্নান, যুগ্ম সম্পাদক সৈয়দ শফিকুল ইসলাম, আওলাদ হোসেন শিল্পী, দফতর সম্পাদক গোলাম মোস্তফা কামাল, জাগপা নেতা সালাম চৌধুরী, যুব জাগপার সভাপতি ফাইজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরিদউদ্দিন, সহ সভাপতি মাহিদুর রহমান বাবলা, নগর যুব সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম বাবলু, জাগপা ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুল আলম, যুগ্ম সম্পাদক শ্যামল চন্দ্র সরকার ও প্রচার সম্পাদক আবু নাঈম।

Please follow and like us:
Facebook Comments