সামরিক চুক্তির নামে দেশবাসী গোলামী মানবে না : প্রধান

ক্রাইমবার্তা রিপোট:বিশ দলীয় জোটের শরীক দল জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান বলেছেন, দেশ আমার-মাটি আমার। বাংলাদেশের মাটি ও দেশপ্রেমিকদের দিল্লীর স্বার্থে অন্য দেশের বিরুদ্ধে ব্যবহার করা চলবে না। সামরিক চুক্তির নামে গোলামী দেশবাসী মানবে না।

শফিউল আলম প্রধান (ফাইল ফটো) 

সামরিক চুক্তি গোলামীর চুক্তি-রুখে দাঁড়াও বাংলাদেশ। এই আওয়াজ তুলে আজ জাগপার ৩৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বিজয়নগর পানির ট্যাংকির সামনে বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ যাতে মাথা উঁচু করে না দাঁড়ায় এজন্য দেশকে নেতা ও সেনা শূন্য করার চক্রান্ত চলছে। নেতা শূন্য করতে জেল-জুলুম, গুম-খুন ও দেশপ্রেমিক নেতাদের ফাঁসিতে ঝোলানো হচ্ছে। লাখো শহীদের বাংলাদেশ রক্ষায় এই চক্রান্ত রুখতেই হবে।

তিনি বলেন, শুধু তিস্তা চুক্তিতে পানির সমস্যা সমাধান হবে না। ফারাক্কাসহ উজানের সব নদীর পানির ন্যায্য হিস্যা চাই। সীমান্ত হত্যা বন্ধ করতে হবে। ৭১’র পর আমার দেশের লুণ্ঠিত সমরাস্ত্র ও সম্পদ ফেরত দিতে হবে। ৫ জানুয়ারি গণতন্ত্র ও গণহত্যার দায় স্বীকার করে বাংলাদেশের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে।

প্রধান বলেন, দেশ হিসেবে আমরা ছোট হতে পারি কিন্তু জাতি হিসেবে আমরা ছোট নই। মুসলিম অধ্যুষিত ভাটি বাংলার মানুষ মোঘল মানে নাই, ব্রিটিশ মানে নাই, পাকিস্তান মানে নাই। জাতীয় বীর ঈশা খাঁ, ফকির মজনু শাহ, মওলানা ভাসানী শেষ দিন পর্যন্ত লড়েছেন। কিন্তু দাসত্ব মেনে নেন নাই। ৭৫’র ৭ নভেম্বর শহীদ জিয়ার নেতৃত্বে এই অঞ্চলের স্বাধীন চেতা মানুষ দিল্লীর গোলামির শেকল ভেঙে ফেলে। সুতরাং হুঁশিয়ার হয়ে যাও। জীবন থাকতে এই বীরের জাতি কাউয়ার শাসন মেনে নেবে না।

সমাবেশে পার্টির সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা খন্দকার লুৎফর রহমান, সহসভাপতি মাস্টার এম.এ মান্নান, যুগ্মসম্পাদক আসাদুর রহমান খান, কেন্দ্রীয় নেতা রোকনউদ্দিন হাজারী, প্রিন্সিপাল হুমায়ুন কবির, গোলাম মোস্তফা কামাল, বেলায়েত হোসেন মোড়ল, যুব জাগপার সভাপতি ফায়জুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরিদউদ্দিন, জাগপা ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুল আলম, সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রুবেলসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

 

Please follow and like us:
Facebook Comments