বার্সেলোনায় জনতার ওপর ভ্যান চালিয়ে সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ১৩, আহত ৮০

স্পেনের বার্সেলোনায় জনপ্রিয় পর্যটন এলাকা লাস রাম্বলাসে জনতার ওপর ভ্যান চালিয়ে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে কমপক্ষে ১৩ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৮০ জন। এ হামলার ঘটনায় দুই সন্দেহভাজনকে আটক করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে স্থানীয় কাতালান কর্তৃপক্ষ। আরেক সন্দেহভাজন পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলিতে নিহত হয়েছে বলে কিছু মিডিয়ায় খবর এসেছে। স্প্যানিশ গণমাধ্যমগুলো জানাচ্ছে, সাদা রংয়ের একটি ভাড়া করা ফিয়াট ভ্যান দিয়ে হামলা চালানো হয়। আর ভ্যানচালক হামলার পর গাড়ি থেকে নামিয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। হামলাকারীকে ধরার জন্য অভিযান চালাচ্ছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। প্রত্যক্ষদর্শীলা বলছেন, ভ্যানটি আনুমানিক ৮০ কিলোমিটার বেগে চলন্ত অবস্থায় মানুষজনকে পিষ্ট করেছে।  পুলিশ ও স্থানীয় কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এ খবর দিয়েছে বিবিসি, আল জাজিরা ও বার্তা সংস্থা রয়টার্স।
খবরে বলা হয়, হামলায় ব্যবহৃত ভ্যানটি উঠিয়ে দেয়া হয় পথচারিদের ওপর। এতে ভ্যানের নিচে পিষ্ট হয়ে মারা যান অনেকে। আহত হন বহু সংখ্যক। অন্যরা ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে যে যেদিকে পেরেছেন দৌড়ে পালিয়েছেন।
পুলিশ সন্দেহভাজন এক হামলাকরীর ছবি প্রকাশ করেছে। দ্রিস ওউবাকির নামের ওই ব্যক্তি ভ্যান ভাড়া করে পথচারিদের ওপর চালিয়ে দেয় বলে সন্দেহ করা হচ্ছে।
ঘটনাস্থলে পৌছে পুলিশ ঘটনাস্থল ঘিরে ফেলে। স্থানীয়দের ঘরের বাইরে না বের হওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।
স্পেনের প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রাজয় জানিয়েছেন, তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ বজায় রাখছেন। আহতদের চিকিৎসা দেয়া প্রথম অগ্রাধিকার বলে তিনি উল্লেখ করেন। হামলার ঘটনায় বিশ্বনেতারা নিন্দা জানিয়ে স্পেনের পাশে থাকার অঙ্গিকার ব্যক্ত করেছেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, স্পেন সরকারকে সহায়তা করতে প্রয়োজনীয় সবকিছু করবে যুক্তরাষ্ট্র। নিন্দা জানিয়েছেন জার্মান চ্যান্সেল অ্যাঙ্গেলা মার্কেল। বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে বলেছেন, সন্ত্রাসের বিরেুদ্ধে স্পেনের পাশে থাকবে বৃটেন। ফরাসী প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাক্রন একতাবদ্ধ থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন। এছাড়া নিন্দা জানিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

Facebook Comments
Please follow and like us: