খালেদা জিয়া বাংলাদেশের গণতন্ত্রের রক্ষাকবচ। – হাসান উদ্দিন সরকার#রোহিঙ্গা নির্যাতনের প্রতিবাদে গাজীপুরে জামায়াতের বিক্ষোভ ও সমাবেশ#

গাজীপুর সংবাদদাতাঃ বিনপির কেন্দ্রিয় নেতা সাবেক এমপি হাসান উদ্দিন সরকার বলেছেন, কোন ষড়যন্ত্রই জিয়া পরিবারের অগ্রযাত্রাকে বন্ধ করতে পারবেনা। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া বাংলাদেশের গণতন্ত্রের রক্ষাকবচ। এদেশের মানুষকে ভালবাসেন বলেই দেশের প্রতিটি ক্রান্তিকালে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া আন্দোলন সংগ্রামের মাধ্যমে জনগণের পাশে থেকেছেন। অতীতের ন্যায় আবারও বেগম জিয়ার নেতৃত্বে আমরা আন্দোলনের মাধ্যমে দেশের গণতন্ত্র পূনরুদ্ধার করবো, সেই সাথে দেশের জনগণ তাদের হারানো অধিকার ফিরে পাবে ইনশাহআল্লাহ

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ১০তম কারা মুক্তি দিবস উপলক্ষে গতকাল সোমবার সকালে টঙ্গী থানা বিএনপির উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। টঙ্গী থানা বিএনপির সাধারন সম্পাদক মাহবুবুল আলম শুক্কুরের সভাপতিত্বে ও প্রচার সম্পাদক আব্দুর রহিম খান কালার সঞ্চালনায় অন্যান্যেও মধ্যে আরো বক্তব্য দেন, গাজীপুর জেলা যুবদলের সিনিযর সহসবাপতি প্রভাষক বশির উদ্দিন আহমেদ, টঙ্গী সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি আসাদুজ্জামান নূর, ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতা এজিএস সাজেদুল ইসলাম, মহানগর জিসাস সভাপতি কসিম উদ্দিন, গাসিক কাউন্সিলর সেলিম হোসেন, টঙ্গী থানা জিয়া পরিষদের সভাপতি আজিজুল হক রাজু মাস্টার, টঙ্গী থানা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রিপন, টঙ্গী সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি লিটন মৃধা, সাধারণ সম্পাদক শেখ সুমন, বিএনপি নেতা আতিকুল ইসলাম আতিক, টঙ্গী থানা মৎস্যজীবী দলের সভাপতি আবুল কাশেম, সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন, টঙ্গী থানা জাসাস সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, ইঞ্জিনিয়ার ইদ্রিস খান, ফারুক হোসেন খান, আক্তারুজ্জামান নূর, মহানগর জাসাস সাধারণ সম্পাদক বাবুল চৌধুরী প্রমুখ।

এদিকে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ১০ম কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করেছে গাজীপুর মহানগর জিয়া পরিষদ। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ডা.মাজহারুল আলম। মহানগর জিয়া পরিষদের সভাপতি আশরাফ হোসেন টুলুর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপি যুগ্মসম্পাদক সাখাওয়াৎ হোসেন সবুজ, জেলা জিয়া পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাংবাদিক দেলোয়ার হোসেন, মহানগর সাধারন সম্পাদক অধ্যক্ষ দেলোয়ার হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুজ্জামান সোহেল, মাফিকুর রহমান সেলিম, আজহারুল ইসলাম মন্ডল প্রমুখ।এসময় প্রধান অতিথি বলেন, কুখ্যাত এক-এগারোর ধারাবাহিতায় বর্তমান ভোটারবিহীন সরকার দেশের গণতন্ত্র ধ্বংস করেছে, জনগণের বাকস্বাধীনতা হরণ করেছে। এক এগারোর সিডর আর ৫জানুয়ারীর টর্নেডোর মধ্যে কোন পার্থ্ক্য নেই। কারন, দুটোই বাংলাদেশের গণতন্ত্রের জন্য কলঙ্কিত দিন তারিখ।7

এছাড়া কারা মুক্তি দিবস উপলক্ষে সোমবার গাজীপুর মহানগর ছাত্রদলের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গাজীপুর জেলা বিএনপি কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন গাজীপুর পৌর বিএনপির সভাপতি মীর হালিমুজ্জামান ননী। মহানগর ছাত্রদল নেতা এস এম ইমরান রেজার সভাপতিত্বে অলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক সাখাওয়াৎ হোসেন সবুজ, ছাত্রদলের গাজীপুর জেলার সাবেক অহ্বায়ক আব্দুস সালাম।

অন্যান্যেও মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন অ্যাড. মনির হোসেন, জিএস মাসুম, মহিবুর রশিদ মারুফ,তৌকির আহমেদ সুমন প্রমুখ।

গাজীপুর সংবাদদতাাঃ মিয়ানমারে রোহিঙ্গা নির্যাতন ও গণহত্যার প্রতিবাদে
কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে গাজীপুর মহানগর জামায়াতের উদ্যোগ
সোমবার সকালে বৃষ্টি উপেক্ষা করে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ
অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বাইপাস এলাকা থেকে সকাল ৮ টার দিকে মহানগর আমীর
অধ্যক্ষ এস এম সানাউল্লাহর নেতৃত্বে বের হওয়া মিছিলটি মহাসড়কের বিভিন্ন
অংশ প্রদক্ষিণ শেষে কলম্বিয়ার কাছে যেয়ে পথসভার মাধ্যমে শেষ হয়।

নগর জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি মুহাম্মদ হোসেন আলীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত
পথসভায় বক্তব্য প্রদানকালে মহানগর আমীর বলেন, মিয়ানমারে শিশু ও নারীসহ
নিষ্ঠুর গণহত্যার মাধ্যমে সভ্যতার কবর রচনা করা হয়েছে, অথচ জাতিসংঘ এখনো
কার্যকর কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। তিনি বলেন, স্বাধীন আরাকান রাষ্ট্র
প্রতিষ্ঠা ছাড়া রোহিঙ্গা সংকটের স্থায়ী কোনো সমাধান হবে না। তিনি
বাংলাদেশ সরকারের উদ্দেশ্যে বলেন, স্থায়ী সমাধানের পূর্ব পর্যন্ত
রোহিঙ্গাদের পুশব্যাক করবেন না। মানবিক কারণে তাদের থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা
করুন।

মিছিলে বিভিন্ন থানা জামায়াতের আমীরগণের মাঝে মোশারফ হোসেন,
ছাদেকুজ্জামান খান, আশরাফ আলী কাজল, মনির হোসেন, মহিউদ্দিন ও শ্রমিক নেতা
নূরে আলমসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ অংশ গ্রহণ করেন।

 

গাজীপুরে নিখোঁজে ৩১ ঘন্টা পর লাশ উদ্ধার।
গাজীপুর সংবাদদাতাঃ গাজীপুরে বিলের পানিতে ঘাস কাটতে গিয়ে নিখোঁজের ৩১ ঘন্টা পর সোমবার বিকেলে কচুরি পানার ভিতর থেকে এক বাবুর্চির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত আকমল উদ্দিন ঢালীর (৭০) গাজীপুর মহানগরের পাইকরদেশী এলাকার মৃত নিয়ামত উদ্দিন ঢালীর ছেলে।এলাকাবাসির ধারনা বিলের মাঝে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

এলাকাবাসি ও নিখোঁজ ব্যাক্তির স্বজনরা জানায়,আকমল উদ্দিন ঢালী রবিবার সকাল ৯ টার দিকে বাড়ির পাশে বর্ষার পানিতে বকভাংগার বিলে তালের নৌকা (কোন্দা) নিয়ে গরুর জন্য ঘাস কাটতে বের হয়। বের হওয়ার কিছুক্ষণ পর থেকে ঝড়-বৃষ্টি হতে থাকে। এক পর্যায়ে সে বাড়ি না ফেরায় পরিবারের লোকজন ও এলাকাবাসি তাকে খুজে না পাওয়ায় তার নিখোঁজের বিষয়টি নিশ্চিত হয়।পরে অনেক খোজা খোজির পর সোমবার বিকেল ৪টার দিকে পাইকরদেশি এবং টেকিপাড়ার মাঝখানের বিলের কচুরিপানার ভিতর থেকে তার লাশ উদ্ধার করে এলাকাবাসি। নিহতের শরীরে পোড়া দাগ ও হাত কোকরানো রয়েছে। নিহতের ভাতিজা ফজলুল হক জানান,বিলের মাঝখানে জিআই তার দিয়ে বিদ্যুত নেয়া হয়েছে।ধারনা করা হচ্ছে ওই বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে বিদ্যুতপৃষ্ট হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

 

 

Please follow and like us:
Facebook Comments