কাপাসিয়ায় আওয়ামী লীগ-কৃষক লীগের সংঘর্ষ, আহত ৮

গাজীপুরের কাপাসিয়ায় আজ বুধবার সন্ধ্যায় পূজাম-প পরিদর্শনকালে আওয়ামী লীগ ও কৃষক লীগের দুই গ্রুপের রাস্তা অতিক্রম করাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর ও ৭/৮ জন আহত হয়েছে। ঘটনার সময় স্থানীয় সংসদ সদস্য সিমিন হোসেন রিমি ও বাংলাদেশ কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মোতাহার হোসেন মোল্লা উপস্থিত ছিলেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কৃষক লীগের উদ্যোগে আজ বিভিন্ন পূজাম-প পরিদর্শনের কর্মসূচি ছিল। কৃষকলীগের সভাপতি মো. মোতাহার হোসেন মোল্লার নেতৃত্বে উপজেলার এগারো ইউনিয়নের কৃষক লীগের নেতাকর্মীদের একটি বহর নিয়ে দিনব্যাপী বিভিন্ন এলাকার পূজাম-প পরিদর্শন শেষে সনমানিয়ায় ফিরছিলেন। কয়েক শ’ নেতাকর্মীর এ বহরটি সনমানিয়া ইউনিয়নের আড়াল বাজার এলাকায় পৌঁছলে উপজেলা যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা তাদের বাধা প্রদান করে এবং অতর্কিত হামলা চালায়। এতে সদর ইউনিয়ন কৃষক লীগ সভাপতি শাকিল হাসান, ঘাগটিয়া ইউনিয়ন কৃষকলীগ সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক মোল্লাসহ ৭/৮ জন আহত হয় এবং কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। এ বিষয়ে কাপাসিয়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউর রহমান লস্কর মিঠু জানান, সন্ধ্যায় স্থানীয় সংসদ সদস্য সিমিন হোসেন রিমি উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের বিশাল বহর নিয়ে পূজামন্ডপ পরিদর্শনে বের হন। বিভিন্ন পূজামন্ডপ পরিদর্শন শেষে দক্ষিণগাও থেকে কড়িহাতা ইউনিয়নে আসার পথে আড়াল বাজার এলাকায় কেন্দ্রীয় কৃষক লীগ সভাপতি মোতাহার হোসেন মোল্লার নেতৃত্বে কৃষক লীগের অপর একটি বহরের মুখোমুখি হয়। এসময় তারা রিমি আপার গাড়ী বহর থামিয়ে নিজেরা আগে যেতে চায়। এ নিয়ে উভয়পক্ষে বাকবিতন্ডা হয়। পরে নেতৃবৃন্দের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়। তবে কোন সংঘর্ষ বা ভাংচুরের ঘটনা ঘটেনি।

Please follow and like us:
Facebook Comments