গাজীপুরে আটক জামায়াত নেতাদের নিয়ে মিথ্যাচারের তীব্র নিন্দা ও তাদের মুক্তি দাবি

গাজীপুরে আটক তিন জামায়াত নেতার বিরুদ্ধে পুলিশ প্রশাসনের মিথ্যা মামলা দায়ের ও তাদেরকে জড়িয়ে নির্জলা মিথ্যাচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন গাজীপুর মহানগর জামায়াতের আমীর অধ্যক্ষ এস এম সানাউল্লাহ ও সেক্রেটারি খায়রুল হাসান। রোববার বিকেলে প্রদত্ত এক বিবৃতিতে তারা বলেন, গত শুক্রবার সকালে মোটরসাইকেল যোগে বাড়ি যাওয়ার সময় জয়দেবপুর শহর এলাকায় মোটরসাইকেল থামিয়ে পুলিশ মহানগর জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি মুহাম্মদ হোসেন আলীকে এবং তার সাথে থাকা ফরিদপুর থেকে গাজীপুরে বেড়াতে আসা দুই জামায়াত নেতাকে আটক করে নিয়ে যায়। দু’দিন বেআইনিভাবে আটকে রেখে শারিরীক ও মানসিক নির্যাতন চালিয়ে অবশেষে তাদের নিয়ে পেট্রোল বোমা নাটক সাজানো হয়েছে। রোববার বিকেলে সংবাদ সম্মেলনের নামে গাজীপুরের পুলিশ প্রশাসন নিজেরাই নিজেদের টেবিলে পেট্টোল বোমা সদৃশ বোতল সাজিয়ে এর সাথে আটক জামায়াত নেতাদের জড়িয়ে নির্জলা মিথ্যাচার চালিয়েছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্বে নিয়োজিত পুলিশ বাহিনীর এহেন অপকর্মে আমরা বিস্মিত ও হতবাক। জননিরাপত্তা বিঘ্নিত করার যেসব কল্পিত অভিযোগ এনে আটক জামায়াত নেতাদের বিরুদ্ধে উক্ত সংবাদ সম্মেলনে অপপ্রচার চালানো হয়েছে এর মাঝে সত্যের লেশ মাত্র নেই। জামায়াতকে আদর্শিকভাবে মোকাবিলা করতে ব্যর্থ হয়ে কর্তৃত্বপরায়ণ সরকার পুলিশ বাহিনীকে জামায়াতের বিরুদ্ধে লেলিয়ে দিয়েছে। এসব মিথ্যা প্রোপাগান্ডা চালিয়ে জামায়াতের ভাবমর্যাদা ক্ষুন্নের অপচেষ্টা কখনোই সফল হবে না। সচেতন জনগণ সরকারের সব অপচেষ্টা ব্যর্থ করে দিবে ইনশা আল্লাহ।
বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় মিথ্যা মামলা ও জঘন্য মিথ্যাচার থেকে বিরত থেকে জনগণের সেবক হিসেবে যথার্থ ভুমিকা পালনের জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান এবং গ্রেফতারকৃত নির্দোষ জামায়াত নেতাদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন।প্রেস বিজ্ঞপ্তি।
Please follow and like us:
Facebook Comments