বিদেশ যেতে রাষ্ট্রপতিকে অবহিত করে প্রধান বিচারপতির চিঠি

বিদেশে যাওয়ার কথা রাষ্ট্রপতিকে জানাতে আইন মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা।

এই বিষয়ে আইনসচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘মহামান্য রাষ্ট্রপতির বরাবর মাননীয় প্রধান বিচারপতি বিদেশে যাওয়ার জন্য চিঠির একটি অনুলিপি আমরা পেয়েছি। এটি এখন প্রক্রিয়াধীন।’

আইন মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, প্রধান বিচারপতি তার চিঠিতে ১৩ অক্টোবর থেকে ১০ নভেম্বর বিদেশে থাকবেন বলে উল্লেখ করেছেন।

গত ১ আগস্ট সুপ্রিম কোর্টের বিচারকদের অপসারণের মতা জাতীয় সংসদের হাতে প্রদান করে আনা সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিল ঘোষণা করে আপিল বিভাগের দেয়া রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশ করা হয়। বলা হয়েছে, স্বাধীন ও নিরপেভাবে হস্তক্ষেপমুক্ত নির্বাচন না হলে গণতন্ত্র বিকশিত হতে পারে না। বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচনের অভাব হলে একটি গ্রহণযোগ্য সংসদ প্রতিষ্ঠিত হতে পারে না। ফলস্বরূপ, আমাদের নির্বাচন প্রক্রিয়া এবং সংসদ শিশু অবস্থায় রয়ে গেছে। জনগণ এ দু’টি প্রতিষ্ঠানের ওপর আস্থা রাখতে পারছে না। এ দু’টি প্রতিষ্ঠান যদি জনগণের আস্থা এবং শ্রদ্ধা অর্জনের জন্য প্রাতিষ্ঠানিকীকরণ থেকে বিরত থাকে তাহলে কোনো গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হতে পারে না।

তবে ওই রায়ের পর্যবেক্ষণে প্রধান বিচারপতি সংসদ ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে খাটো করেছেন উল্লেখ করে ক্ষোভ প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন সরকারের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী, এমপি এবং ক্ষমতাসীন দলের নেতারা। ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় এবং তার কিছু পর্যবেণের বিষয়ে আইনি পদক্ষেপ নিতে জাতীয় সংসদে একটি প্রস্তাবও গ্রহণ করা হয়। ওই প্রস্তাব পাসের আগে সংসদে আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আদালত তার এখতিয়ারের বাইরে গিয়ে সংসদে আনা সংবিধান সংশোধন বাতিলের এই রায় দিয়েছে। সংসদ ও গণতন্ত্রকে প্রশ্নবিদ্ধ করে এই রায় দেয়ার উদ্দেশ্য নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি।

সেই সময় থেকেই প্রধান বিচারপতি ও সরকারের সম্পর্ক নিয়ে ব্যাপক অালোচনা সমালোচনা চলছে।

Facebook Comments
Please follow and like us: