সাতক্ষীরায় ষাটোর্ধ বৃদ্ধের ঝুলন্ত লাশ, নজরদারিতে স্ত্রী

 গলায় নায়লনের রশির ফাঁস লাগিয়ে ঘরের বৈদ্যুতিক ফ্যানে ঝুলন্ত এক বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
তাকে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে নাকি তিনি আত্মহত্যা করেছেন তা স্পষ্ট নয়।
মঙ্গলবার রাতের কোনো এক সময় ঘটনাটি ঘটে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার হাড়দ্দহা গ্রামে। বুধবার সকালে সদর থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। নিহত ব্যক্তির নাম আবদুল হাকিম। তার বয়স ৬২ বছর।
প্রতিবেশী ইউপি সদস্য আশরাফুল ইসলাম জানান, আবদুল হাকিম নিঃসন্তান হওয়ায় পরপর তিনটি বিয়ের পর পাঁচ বছর আগে তিনি আনোয়ারা খাতুন রুনা নামের এক নারীকে দুটি সন্তানসহ বিয়ে করেন। বিয়ের সময় কথা ছিল তিনি তাদের নামে তার সম্পত্তি লিখে দেবেন। কিন্তু সম্পত্তি লিখে না দেওয়ায় স্ত্রী রুনার সাথে তার ঝগড়া-বিবাদ চলছিল। এরই এক পর্যায়ে মঙ্গলবার রাতে তার মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। তিনি জানান, আবদুল হাকিম কিছুদিন আগে হজ্ব করেছেন। তিনি আত্মহত্যা করতে পারেন দাবি করে ইউপি সদস্য আরও বলেন ‘গলায় ফাঁস লাগানো আবদুল হাকিমের লাশ এমনভাবে ঝুলন্ত ছিল যে দেখেই মনে হবে তিনি দাঁড়িয়ে রয়েছেন।’
ঘটনাস্থল থেকে সাতক্ষীরা সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শ্যামাপ্রসাদ জানান, লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করা হয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
তিনি বলেন ‘এ ঘটনা একটি পরিকল্পিত হত্যা এমন অভিযোগ এখন পর্যন্ত কেউ করেনি’। ময়না তদন্ত শেষে তার মৃত্যুর রহস্য পরিষ্কার হবে বলে জানান তিনি। তিনি আরও জানান ঘটনার পর থেকে তার স্ত্রীকে নজরদারির মধ্যে রাখা হয়েছে।

Facebook Comments
Please follow and like us: