জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার দ্বিতীয় দিনে ৬১,৯৮৯ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত

জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার দ্বিতীয় দিনে সব কয়টি বোর্ডে ৬১ হাজার ৯৮৯ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষা হলে অনুপস্থিত ছিলেন। বুধবার প্রথম দিনে এই পরীক্ষায় সারাদেশে অনুপস্থিত ছিল ৬০ হাজার ৮৯৩ পরীক্ষার্থী। প্রথম দিনের তুলনায় দ্বিতীয় দিনে অনুপস্থিতির সংখ্যা বেড়েছে ১ হাজার ৯৬ জন। দ্বিতীয় দিন বহিষ্কারও বেড়েছে। প্রথম দিন ১৬ পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়। দ্বিতীয় দিন বৃহস্পতিবার অসাদুপায় অবলম্বনের দায়ে ১৯ জনকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তবে কোনো শিক্ষক বহিষ্কার হননি।

বৃহস্পতিবার মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাবকমিটির সভাপতি স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তথ্য জানানো হয়েছে।

এবারের জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষায় সারাদেশে ২৩ লাখ ৯০ হাজার ১৩৪ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণের কথা ছিল।

এবার ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ৬ লাখ ৬৫ হাজার ৪৭৪ জন। এর মধ্যে দ্বিতীয় দিনে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ৬ লাখ ৫১ হাজার ৬৪৯ জন। অনুপস্থিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৩ হাজার ৮২৫ জন। এর মধ্যে পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের জন্য এই বোর্ডে বহিষ্কার করা হয়েছে ১১ জন শিক্ষার্থী।

রাজশাহী বোর্ডে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ২ লাখ ৪০ হাজার ৫৭৭ জন। দ্বিতীয় দিন পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ২ লাখ ৩৫ হাজার ৭৭৭ জন। অনুপস্থিত ছিল ৪ হাজার ৮০০ জন। এই বোর্ডে কাউকে বহিষ্কার করা হয়নি।

কুমিল্লা বোর্ডে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ২ লাখ ৫০ হাজার ৮৯৬ জন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ২ লাখ ৪৬ হাজার ২২৬ জন। অনুপস্থিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৪ হাজার ৬৭০ জন। বহিষ্কার হয়েছে একজন শিক্ষার্থী।

যশোর শিক্ষা বোর্ডে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ২ লাখ ১৬ হাজার ৪০৪ জন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ২ লাখ ১১ হাজার ৪৪৯ জন। অনুপস্থিত ছিল ৪ হাজার ৯৯৫ জন শিক্ষার্থী। বহিষ্কার হয়নি একজনও।

চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১ লাখ ৭৪ হাজার ২২৯ জন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ১ লাখ ৭১ হাজার ২৯০ জন। আর অনুপস্থিত ছিল ২ হাজার ৯৩৯ জন। বহিষ্কার নেই।

সিলেট শিক্ষা বোর্ডে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ১ লাখ ৩২ হাজার ১৭০ জন। আর পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ১ লাখ ২৯ হাজার ৭৩৮ জন। অনুপস্থিত ছিল ২ হাজার ৪৩১ জন। বহিষ্কার নেই।

বরিশাল বোর্ডে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১ লাখ ১৮ হাজার ২৫৭ জন। আর পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন ১ লাখ ১৪ হাজার ৮৬৩ জন। অনুপস্থিত শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৩ হাজার ৩৯৪ জন। বহিষ্কার হয়নি কোনো পরীক্ষার্থী।

দিনাজপুর বোর্ডে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ২ লাখ ২৫ হাজার ৩২৯ জন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ২ লাখ ২০ হাজার ৯৪৭ জন। অনুপস্থিত ছিল ৪ হাজার ৩৮২ জন। বহিষ্কার নেই।

অন্যদিকে, মাদরাসায় জেডিসিতে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ৩ লাখ ৬৭ হাজার ১২ জন। আর পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ৩ লাখ ৪৬ হাজার ৪১৯ জন। এই পরীক্ষায় অনুপস্থিত ছিলেন ২০ হাজার ৫৯৩ জন। বহিষ্কার হয়েছে ৭ জন।

জেএসসি ও জেডিসিতে সব মিলিয়ে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ২৩ লাখ ৯০ হাজার ১৩৪ জন। আর পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ২৩ লাখ ২৯ হাজার ২৪১ জন। মোট অনুপস্থিত ছিল ৬০ হাজার ৮৯৩ জন। আর মোট বহিষ্কার হয়েছে ১৬ জন শিক্ষার্থী।

বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দিনে জেএসসিতে বাংলা দ্বিতীয়পত্র এবং জেডিসিতে আকিদ ও ফিক্হা পরীক্ষা হয়েছে। আগামী ১৮ নভেম্বর শেষ হবে এই পরীক্ষা।

এবারও বাংলা দ্বিতীয়পত্র, ইংরেজি প্রথম ও দ্বিতীয়পত্র ছাড়া অন্য সব বিষয়ের পরীক্ষা সৃজনশীল প্রশ্নে নেয়া হবে। এবছর থেকে নিয়মিত শিক্ষার্থীদের শারীরিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য, কর্ম ও জীবনমুখী শিক্ষা এবং চারু ও কারুকলা বিষয়ের পরীক্ষা হবে না। তিন বিষয়ে শিক্ষার্থীদের ধারাবাহিক মূল্যায়নের মাধ্যমে প্রাপ্ত নম্বর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রে সরবরাহ করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

Please follow and like us:
Facebook Comments