নুরনগরে হাবিবপুর মাদ্রাসার ছাত্রকে পিটিয়ে জখম করেছেন শিক্ষক

ক্রাইমবার্তা রিপোর্ট:পলাশ দেবনাথ : শ্যামনগর উপজেলার নুরনগরের হাবিবপুর দারুল উলুম হাফিজিয়া মাদ্রাসার শিশু ছাত্রকে পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার সূত্রে জানাযায় অত্র মাদ্রসার কেরাত বিভাগের ছাত্র মো. সোহেল রানা (১১)-কে একদিন মাদ্রাসায় অনপুস্থিত থাকার কারণে বেধড়ক মারপিট করা হয়েছে। সোহেল অত্র মাদ্রাসার বোডিং-এ থেকে মাদ্রাসায় কেরাত বিভাগে লেখাপড়া করে। মাদ্রাসা গত ৫দিন ছুটি ছিল, মাদ্রাসার সকল ছাত্ররা ছুটি কাটিয়ে শনিবার মাদ্রাসার বোডিং আসছে। কিন্তু সোহেল শনিবার মাদ্রাসায় অনপুস্থিত ছিল যার কারণে মাদ্রাসার কারী আঃ হান্নান মোল্যা শিশু সোহেলকে অমানবিকভাবে পিটিয়ে জখম করেছে। সোহেল নুরনগর ইউনিয়নের দক্ষিন হাজীপুর গ্রামের মোঃ হোসেন আলী গাজীর পুত্র। শিশুটির পিতা সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করে বলেন আমার ছেলেকে এভাবে হুজুর কেন মারলো তার বিচার চাই। এলাকার সচেতন মহল বলছেন কোমলমতি শিশুদের উপর এহেন আচরণ ন্যাক্কারজনক। এবিষয়ে মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক মোঃ মুফতি ইকবাল সোবহানের কাছে মুঠো ফোনের মাধ্যমে জানতে চাইলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। তবে তিনি শিশু সোহেল নির্যাতনের ঘটনাটি এড়িয়ে যেতে অনুরোধ জানান। এবিষয় এলাকার সাধারণ মানুষ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন এবং বিচারের দাবি জানিয়েছে।

Please follow and like us:
Facebook Comments