গণতন্ত্রের সাথে সমাবেশের অনুমতির সম্পর্ক নেই : ওবায়দুল কাদের

একুশে আগস্ট হামলার কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশে গণতন্ত্র আছে কি-না তার সাথে বিএনপির সমাবেশের অনুমতির কোনো সম্পর্ক নেই। কারণ বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে আমরা একুশে ফেব্রুয়ারির কর্মসূচির জন্য তিন দিন আগে অনুমতি চাইলেও তারা দেয়নি। পরে আমরা নিজেদের পার্টি অফিসের সামনে মঞ্চ তৈরি করলে তারা সেটাও ভেঙে দেয়। পার্টি অফিসে ঢুকে বেধড়ক লাঠিচার্জ করে। একুশে আগস্ট সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশে হাওয়া ভবনের নির্দেশে বোমা হামলা চালানো হয়। বিএনপিকে তো আর এ অবস্থায় পড়তে হয়নি। সেদিন গণতন্ত্র কোথায় ছিল? এখন গণতন্ত্রের কথা বলা হচ্ছে।

বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণকে ইউনেস্কো স্বীকৃতি প্রদান উপলক্ষে আজ বুধবার বিকেলে রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘর মিলনায়তনে দলটি আয়োজিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।
ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির সমাবেশের অনুমতি দেয়ার বিষয়টি ডিএমপির। সরকারের সাথে এর সম্পর্ক নেই। আজকে আমাদের এই কর্মসূচি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে হওয়ার কথা থাকলেও পুলিশের অনুরোধে আমরা অনুষ্ঠানটি এখানে (জাতীয় জাদুঘরে) স্থানান্তর করি।

তিনি বলেন, আমাদের সমাবেশেরও অনুমতি দেয়নি পুলিশ। আমাদের বলেছে নিরাপত্তা সমস্যা আছে। তাই আমরা আমাদের সমাবেশ ৯ তারিখের পরিবর্তে ১৮ তারিখে নিয়ে গেছি।

বিএনপির উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা বহুবার অনুমতি চেয়েছি। অনুমতি দেয়া হয়নি। যদিও অনুমতি দিয়ে সমাবেশস্থল পণ্ড করা হয়েছে। পুলিশ দিয়ে লাঠিপেটা করা হয়েছে। সমাবেশের অনুমতি দেবে পুলিশ। আওয়ামী লীগ তো অনুমতি দিতে পারবে না।

বিএনপিকে জিয়াউর রহমানের কবরে যেতে বাধা দেয়া হয়নি দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমাকে নিজে বলেছেন, জিয়াউর রহমানের মাজারে যেতে অনুমতি দেয়া হয়েছিল। কোনো বাধা দেয়া হয়নি। কিন্তু বিএনপি না গিয়ে বলছে সরকার অনুমতি দেয়নি। এ বিষয়টি নিয়ে বিএনপি মিথ্যাচার করছে।

Please follow and like us:
Facebook Comments