প্রধানমন্ত্রী শরীকদের সম্মান দিলেও অন্যরা তা দিতে কুন্ঠাবোধ করেন: ইনু

    ক্রাইমবার্তা রিপোর্ট:ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী ১৪ দলের শরীকদের যথাযথ সম্মান ও মর্যাদা দিলেও ১৪ দলের অনেক নেতাই অন্য শরীকদের যথাযোগ্য মর্যাদা দিতে কুন্ঠাবোধ করেন বলে মন্তব্য করেছেন জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু।

রবিবার বেলা দেড়টার দিকে সাংবাদিকের সঙ্গে আলাপকালে তথ্যমন্ত্রী ইনু এই মন্তব্য করেন।

প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে পাওয়া দাওয়াতের বিষয়ে কয়েকজন সাংবাদিক জিজ্ঞেস করলে তথ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনেক উদার। তার কাছে আমি ১৪ দলের নেতাদের মর্যাদা চাই। প্রধানমন্ত্রী ১৪ দলের শরীকদের সম্মান করেন, মর্যাদা দেন। কিন্তু ১৪ দলের অনেক নেতাই অন্য শরীকদের যথাযোগ্য মর্যাদা দিতে কুন্ঠাবোধ করেন। অনেক শরীকই তাঁর যথাযোগ্য মর্যাদা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

দেশের রাজনৈতিক ও নিরাপত্তা পরিস্থিতির কথা উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, দেশ এখন কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। বিএনপি-জামাত জোটের তৎপরতায় দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি ঘোলাটে হচ্ছে। দেশের এমন ক্রান্তিকালে ১৪ দলের শরীকদের তুচ্ছ তাচ্ছিল্য করে জোটে ভাঙ্গন ধরালে ক্ষতি হবে সবারই। জোটের সবাইকেই প্রাপ্য সম্মানটুকু দিতে হবে।

হাসানুল হক ইনু আরো বলেন, আগামী সংসদ নির্বাচনের জোটকে এখন থেকেই তৎপর হতে হবে। টিম ওয়ার্কের মাধ্যমেই নিজেদের অপ্রতিরোধ্য হিসেবে গড়ে তুলতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিনীত অনুরোধ জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, পাঙ্গাস চিতল চাইনা, শরীকদের সম্মান চাই।

কথায় কথায় নালিশ করা বিএনপির পুরনো অভ্যাস: কাদের
কথায় কথায় নালিশ করা বিএনপির পুরনো অভ্যাস বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

রবিবার দুপুরে ঢাকার একটি রেস্তোরাঁয় জাতীয় সড়ক পরিবহন নিরাপত্তা কাউন্সিলের সাধারণ সভা শেষে বেরিয়ে আসার পর বিএনপির অভিযোগের প্রতিক্রিয়ায় তিনি এই মন্তব্য করেন।

রবিবার বিকালে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপির সমাবেশের আগে সকাল থেকে আশাপাশের জেলা থেকে ঢাকাগামী অধিকাংশ বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে।

বিএনপি নেতারা অভিযোগ করেছেন, তাদের কর্মসূচিতে জনসমাগম ঠেকাতে সরকার পরিকল্পিতভাবে বাস চলতে দিচ্ছে না।

বিএনপির এই অভিযোগ প্রসঙ্গে কাদের বলেন, এটা খতিয়ে দেখতে হবে, খোঁজ নিতে হবে বাধাটা কে দিচ্ছে? বিএনপি তো নিজেরাই নিজেদের বাধা দেয়।

তিনি বলেন, অতীতে আমরা যখন এসব অভিযোগের খোঁজ-খবর নিয়ে দেখি, তখন অনেক সময় দেখা যায়, এসব অভিযোগের বাস্তব কোনো ভিত্তি নেই। আসলেই কথায় কথায় নালিশ করা বিএনপির পুরনো অভ্যাস।

Please follow and like us:
Facebook Comments