প্রাডো গাড়ি থেকে উদ্ধার বাঘ-সিংহের ৪ বাচ্চা

ক্রাইমবার্তা রিপোর্ট:যশোর:ভারতে পাচারের জন্য নিয়ে যাওয়ার সময় যশোরে একটি প্রাডো গাড়ি থেকে দুটি সিংহ শাবক ও দু’টি লিওপার্ড ক্যাট শাবক উদ্ধার করা হয়েছে। এসময় দুই পাচারকারীকেও আটক করা হয়। যদিও পুলিশ প্রথমে চারটি বাঘ শাবক উদ্ধারের কথা বলেছিল। পাচারকারী সন্দেহে আটকেরা হলেন বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার বশিকুড়া গ্রামের আহাদ আলী সরদারের ছেলে কামরুজ্জামান বাবু (৩১) ও নরসিংদীর পলাশ উপজেলার বকুলনগর গ্রামের মান্নান ভূইয়ার ছেলে রানা মিয়া (২৮)। এসময়ে পুলিশ ঢাকা মেট্রো ঘ ১৩-২৭৯০ নম্বরের বিলাসবহুল প্রাডো জিপটিও আটক করে।

সোমবার সকাল ১১টার দিকে শহরতলীর চাঁচড়া চেকপোস্ট এলাকা থেকে একটি প্রাডো গাড়ি থেকে শাবকগুলো উদ্ধার করা হয়। ভারতে পাচারের জন্য ঢাকা থেকে বেনাপোলের উদ্দেশ্যে বাচ্চাগুলোকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল।

যশোরের পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান জানান, ‘গোপন সূত্রে তারা জানতে পারেন ৪টি বাঘের বাচ্চা পাচারের উদ্দেশে বেনাপোল নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এই তথ্যের ভিত্তিতে চাঁচড়া চেকপোস্টে তল্লাশিকালে একটি প্রাডো গাড়ি থেকে ওই চারটি শাবক উদ্ধার করা হয়।’

চাঁচড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সৈয়দ বায়োজিদ জানান, ‘ গোপন তথ্যের ভিত্তিতে বাঘের বাচ্চা হিসেবেই দুইটি বাক্স থেকে এই চারটি শাবককে উদ্ধার ও ওই দু’জনকে আটক করা হয়। পরে বাচ্চাগুলোকে খাঁচায় বের করে শনাক্তের জন্য বন বিভাগকে খবর দেয়া হয়।’ বন বিভাগের কর্মকর্তারা এসে প্রাথমিকভাবে দু’টি শাবককে সিংহের এবং দু’টিকে লিওপার্ড শাবক হিসেবে শনাক্ত করেন।

যশোরের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা সরোয়ার আলম সাংবাদিকদের জানান, বড় দু’টি শাবক সিংহের এবং ছোট দু’টি লিওপার্ড শাবক। শাবকগুলোকে গ্রহণের জন্য খুলনা থেকে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা আসছেন।

Please follow and like us:
Facebook Comments