‘রাখাইন রাজ্যে ঘটে যাওয়া অমানবিক সহিংসতায় ব্রিটিশ সরকার হতভম্ব’

আনাদোলু এজেন্সি : মিয়ানমারে সংখ্যালঘু মুসলিম রোহিঙ্গাদের উপর চলমান সহিংসতা ও নির্যাতনকে ব্রিটেনও ‘জাতিগত নিধন’ হিসেবে বর্ণনা করেছে। সোমবার ব্রিটিশ সরকারের একজন মুখপাত্র এ কথা জানান। এর আগে জাতিসঙ্ঘ এ হত্যাকা-কে ‘জাতিগত নিধনের ধ্রুপদী উদাহরণ’ হিসেবে উল্লেখ করেছিল।

ব্রিটিশ গণমাধ্যমের খবরে প্রকাশ, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর অফিস ডাউনিং স্ট্রিটের মুখপাত্র বলেছেন, ‘রাখাইন রাজ্যে ঘটে যাওয়া অমানবিক সহিংসতায় ব্রিটিশ সরকার হতভম্ব’।

‘মিয়ানমার সেনাবাহিনী যে মারাত্মক মানবাধিকার সঙ্কট সৃষ্টি করেছে তা জাতিগত নিধনেরই সামিল’, বলছিলেন তিনি। ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটের এ বক্তব্য জাতিসঙ্ঘের বক্তব্যের প্রতিই সমর্থন।

তুরস্কের সরকারি বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সি লিখেছে, মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের উপর সহিংসতা বিষয়টি তুরস্কও বিশ্ব দরবারে তুলে ধরার চেষ্টা করে যাচ্ছে।

গত ২৫ আগস্ট শুরু হওয়া সহিংসতায় জাতিসঙ্ঘের হিসাব অনুযায়ী ছয় লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আসতে বাধ্য হয়েছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে আয়ারল্যান্ডের প্রখ্যাত সঙ্গীত ব্যক্তিত্ব ও লাইভ এইডের প্রতিষ্ঠাতা বব গেলডফ তার সম্মানসূচক ফ্রিডম অফ দ্য সিটি অফ ডাবলিন অ্যাওয়ার্ড ফিরিয়ে দেয়ার ঘোষণা দেন।

মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর পাশাপাশি সংখ্যাগুরু বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের উগ্রবাদীরা বহু রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ ও শিশুদের হত্যা করেছে। লুটপাট করা করে আগুনে জ্বালিয়ে দিয়েছে তাদের বাড়িঘর।

Please follow and like us:
Facebook Comments