রোহিঙ্গাদের ফেরাতে বাংলাদেশ-মিয়ানমার ৩০ সদস্যের ওয়ার্কিং কমিটি

ক্রাইমবার্তা ডেস্করিপোর্ট:    রোহিঙ্গাদের ফেরাতে ৩০ সদস্যের যৌথ ওয়ার্কিং কমিটি গঠন করেছে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার।
 এ কমিটি গঠনের পর বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠানোর কাজ শুরু করতে দুই মাস সময় লাগবে।
মঙ্গলবার বাংলাদেশ-মিয়ানমার পররাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের বৈঠকে যৌথ ওয়ার্কিং কমিটি গঠন করা হয়।
বৈঠকে প্রত্যাবাসনের যাবতীয় শর্তাবলি চূড়ান্ত হয়েছে। পরে উভয় দেশের সচিব পর্যায়ে এ সংক্রান্ত দলিল হস্তান্তর করা হয়।
ঢাকায় রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন মেঘনায় সকাল ৮টায় শুরু হওয়া দুই দিনব্যাপী ওই বৈঠকে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক। আর মিয়ানমারের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন দেশটির স্থায়ী সচিব মিন্ট থিউ।
তবে যৌথ ওয়ার্কিং কমিটিতে কারা থাকছেন,  কমিটির কাজের পরিধি, চলমান বৈঠকে কী কী বিষয়ে দুই দেশ ঐকমত্যে পৌঁছেছে তা এখনও জানা যায়নি।
সোমবার সন্ধ্যায় মিয়ানমারের পররাষ্ট্র সচিব মিন্ট থিউয়ের নেতৃত্বে ৬ সদস্যের প্রতিনিধিদল ঢাকায় আসে।
রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে ২৩ নভেম্বর মিয়ানমারের প্রশাসনিক রাজধানী নেপিদোতে একটি অ্যারেঞ্জমেন্ট সই হয়।
তার আলোকে তিন সপ্তাহের মধ্যে যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠন এবং দুই মাসের মধ্যে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো শুরু হওয়ার কথা। যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপ রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া তদারকি করবে। ১৯ডিসেম্বর,২০১৭,মঙ্গলবার:ক্রাইমর্বাতাডটকম/প্রতিনিধি/আসাবি

Please follow and like us:
Facebook Comments