গোদাগাড়ীতে বিরল প্রজাতির গন্ধ গোকুল ধরা পড়েছে

গোদাগাড়ী প্রতিনিধিঃ রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে বিরল প্রজাতির প্রাণী গন্ধ গোকুল ধরা পড়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাতে পৌর এলাকার সারাংপুর গ্রামের সাইদের বাড়ীতে ঢুকে পড়ে গন্ধ গোকুল। বুধবার দুপুর ১২ টার দিকে বাড়ীর এক মহিলা সদস্য স্টোর রুমে ঢুকে দেখতে পাই বিরল প্রজাতির গন্ধ গোকুল। এ সময় বাঘ বাঘ বলে মহিলাটি চিৎকার দিলে বাড়ীর অন্য লোকজন গিয়ে স্টোরে রুমের দরজা বন্ধ করে দেয়। খবর পেয়ে গ্রামের মানুষ সাইদের বাড়ীতে ভিড় করতে থাকে। খবর দেওয়া হয় রাজশাহী বিভাগীয় বন্য প্রাণী সংরক্ষণ বিভাগ। বুধবার বিকাল ৩ টায় বন্য প্রাণী সংরক্ষণ বিভাগের কর্মকর্তারা সারাংপুর গ্রামে এসে স্থানীয় লোকজনের সহযোগীতায় মাছ ধরা জাল দিয়ে বিরল প্রজাতির গন্ধ গোকুলকে আটক করে। আহত গন্ধ গোকুলটি চিকিৎসা দেওয়ারপর বন্য প্রাণী সংরক্ষণ বিভাগের রেসকিউতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। চিকিৎসা শেষে গন্ধ গোকুলটি বনে ছেড়ে দেওয়া হবে। সারাংপুর গ্রামের ইয়াকুব আলী বলেন, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে গন্ধ গোকুলটিকে পদ্মা নদীর ধারে দেখা যায়। ধারণা করা হচ্ছে কোন বন থেকে নদীর পার দিয়ে এসে সাইদ আলীর বাড়ীতে গন্ধ গোকুলটি আশ্রয় নিয়েছিল। স্থানীয় লোকজন জানান, গন্ধ গোকুলটি মেছো বাঘের মতো দেখতে। প্রথমে গন্ধ গোকুলটিকে দেখে গ্রামের লোকজন আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। শিশুরা গন্ধ গোকুলটিকে মেছো বাঘ ভেবে ইট পাটকেল মেরে আঘাত করে। এ প্রসঙ্গে উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ সাইফুল ইসলাম বলেন আটককৃত গন্ধ গোকুলটি বিরল প্রজাতির প্রাণী। এই প্রাণীটি বিলুপ্তির পথে। বন ও জঙ্গলে অল্প সংখ্যক গন্ধ গোকুল দেখা যায়। তবে গন্ধ গোকুলটি হিং¯্রাত্মক নয়। মানুষের কোন ক্ষতি করে না

Facebook Comments
Please follow and like us: