উদ্ধার হওয়া লাশটি বিএনপি সভাপতির!

ক্রাইমবার্তা রিপোর্ট:নওগাঁ: নওগাঁর রাণীনগরে শাহআলম ওরফে সুজা উদ্দীন (৬৫) নামের এক ব্যক্তির লাশ শুক্রবার দুপুরে উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।

তিনি বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার মহাবালা গ্রামের মৃত সামছুদ্দীনের ছেলে। তিনি ওই এলাকার ময়দানহাট্টা ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি।

শাহআলম ওরফে সুজা উদ্দীনের ভাতিজা এবং স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম রুপম হোসেন মোবাইল ফোনে জানান, গত ২৬ জানুয়ারি শুক্রবার ব্যক্তিগত কাজে বাড়ি থেকে বের হয়ে যান। এর পর আর বাড়িতে ফিরে না আসায় অনেক খোঁজাখোঁজি করে না পাওয়ায় ৩ দিন পর ২৯ জানুয়ারি সুজাউদ্দীনের স্ত্রী জাহানারা বিবি শিবগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

ঘটনার প্রায় ৮ দিনের মাথায় রাণীনগর থানা পুলিশ মোবাইল ফোনে তার লাশ পাওয়ার কথা জানান । খবর পেয়ে রাণীনগরে গিয়ে লাশ সনাক্ত করা হয়। শনিবার লাশের ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তন করেছে পুলিশ।

তিনি আরো জানান, স্থানীয় ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতির দায়িত্বে থাকলেও প্রায় দু’বছর ধরে রাজনীতিতে তেমন সক্রিয় ছিলেন না। তবে কেউ তাকে হত্যা করেছে নাকি কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে এ বিষয়ে কোনো ধারণা দিতে পারেননি তিনি।

ময়দানহাট্টা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এবং এই ইউনিয়ন বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম মানিক জানান, শাহআলম ওরফে সুজাউদ্দীন দীর্ঘ দিন ধরে ময়দানহাট্রা ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন এবং পাশাপাশি ওই এলাকার দাড়িদহ বহুমুখী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়েরও সভাপতি ছিলেন । তিনি খুবই ভদ্র এবং সাদাসিধে প্রকৃতির মানুষ ছিলেন।

এ ব্যাপারে সুজাউদ্দীনের স্ত্রী জাহানারা বিবির মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

রাণীনগর থানার ওসি এএসএম সিদ্দিকুর রহমান জানান, লাশের সাথে থাকা মোবাইল ফোন থেকে নম্বর নিয়ে তার পরিচয় সনাক্ত করা হয়। ময়না তদন্ত শেষে শনিবার পরিবারের নিকট লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে । তবে এ ব্যাপারে প্রাথমিকভাবে ইউডি মামলা রুজু করা হলেও এখনো পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো মামলা দায়ের করা হয়নি।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার দুপুরে রাণীনগর রেল গেটের দক্ষিণে রাস্তার পশ্চিম পাশে সিমুলতলি নামকস্থানে রাস্তার খাদে লাশ ভেসে থাকতে দেখে থানায় খবর দেয় স্থানীয়রা । এর পর পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তে পাঠায় ।

Please follow and like us:
Facebook Comments