বাংলাদেশ সীমান্তে বেড়া দিতে ১৫ মিলিয়ন ডলার অনুমোদন দিয়েছে মিয়ানমার পার্লামেন্ট

ক্রাইমবার্তা ডেস্করিপোর্ট:    রাখাইন রাজ্য সংলগ্ন বাংলাদেশ সীমান্তে বেড়া ও প্রাসঙ্গিক অবকাঠামো নির্মাণের জন্য প্রায় ১৫ মিলিয়ন ডলারের বাজেট অনুমোদন করেছে মিয়ানমারের পার্লামেন্ট। গত আগস্ট মাসের পর থেকে ওই এলাকা থেকে প্রায় সাত লাখ মানুষ পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

মিয়ো জাউ অং এমপি জানান, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী এবং বর্ডার্স অ্যাফেয়ার্স মন্ত্রীর পক্ষ থেকে বাজেটের প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। এই তিন মন্ত্রণালয়ই নিয়ন্ত্রণ করে সামরিক বাহিনী।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ডেপুটি মন্ত্রী জেনারেল অং সো স্বীকার করেন যে, বাজেট অনুমোদন হয়েছে এবং ২৯৩ কিলোমিটার সীমান্তের মধ্যে ২০২ কিলোমিটার এলাকায় বেড়া নির্মাণ এরইমধ্যে শেষ হয়েছে।

রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে মিয়ানমারের অনেকের মধ্যে এই ধারণা রয়েছে যে তারা বাংলাদেশ থেকে আসা অবৈধ অভিবাসী, যদিও তারা দীর্ঘদিন ধরে সেখানে বসবাস করছে। অধিকাংশ রোহিঙ্গা সেখানে ব্যাপক সামাজিক ও সরকারী বৈষম্যের শিকার।

মূলত রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা বাহিনীর নৃশংস সহিংসতা থেকে বাঁচতে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে পালিয়ে গেছে। নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে বড় ধরনের মানবাধিকার লঙ্ঘন ও জাতিগত নির্মূল অভিযানের অভিযোগ উঠেছে। একটি রোহিঙ্গা জঙ্গি গ্রুপ ৩০টিরও বেশি পুলিশ আউটপোস্টে হামলার পর সামরিক বাহিনী রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে ব্যাপক অভিযান চালায়।

রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে নেয়ার বিষয়ে আলোচনা চলছে। কিন্তু তাদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষার বিষয়ে নিশ্চয়তা নিয়ে গভীর উদ্বেগ রয়েছে। অনেকেরই ফেরার মতো কোন জায়গাও নেই, কারণ তাদের গ্রামগুলো পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে।southasianmonitor.com

Please follow and like us:
Facebook Comments