সাতক্ষীরা সীমান্তে ১ কোটি ৩০ লাখ টাকার সোনা ও রূপা জব্দ

সাতক্ষীরা সংবাদদাতাঃ ভারতে পাচার কালে সাতক্ষীরার পদ্মশাখরা সীমান্ত থেকে ৫ পিস স্বর্ণের বারসহ এক চোরাবারীকে আটক করেছে বিজিবি। রোববার সকালে সদর উপজেলার পদ্মশাখরা সীমান্ত উক্ত স্বর্ণ চোরাকারবারীকে আটক করা হয়। আটক স্বর্ণ চোরাকারবারীর নাম হাসানুর রহমান (২৩)। তিনি সদর উপজেলার লক্ষিদাড়ী গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে।
এর আগে গত ৮ মার্চ বৃহস্পতিবার ভোমরা স্থল বন্দর সড়কের বাদামতলা এলাকা থেকে ২ কেজি ১০০ গ্রাম ওজনের ১২ পিস স্বর্ণের বার ও কলারোয়া উপজেলার মাদরা সীমান্ত থেকে ১৪ কেজি রূপা জব্দ করা হয়।
ভোমরা বিওপির কমান্ডার সুবেদার শফিকুর রহমান জানান, রোববার সকালে ভারতে পাচারের জন্য চোরাকারবারীদের একটি গ্রুড স্বর্ণের একটি চালান পদ্মশাখরা সীমান্তে নিয়ে আসছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তার নেতৃত্বে বিজিবির একটি টহল দল সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় সেখান থেকে স্বর্ণ চোরাকারবারী হাসানুরকে আটক করা হয়। পরে তার দেহ তল্লাশি করে বিশেষ কায়দায় লুকিয়ে রাখা ৫ পিস স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়। তিনি আরো জানান, উদ্ধারকৃত স্বর্ণের ওজন ৬৫ ভরি ১২ আনা।
এদিকে,গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ভোমরা স্থল বন্দর সড়কের বাদামতলা এলাকা থেকে ২ কেজি ১০০ গ্রাম ওজনের ১২ পিস স্বর্ণের বারসহ আজিজ হাসান নামের এক চোকারবারীকে আটক করে বিজিবি। তিনি সদর উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামের গোলাম সরোয়ারের ছেলে।
অপরদিকে, ওই দিন রাতে কলারোযা উপজেলার মাদরা সীমান্ত থেকে ১৪ কেজি রূপা জব্দ করে বিজিবি।
সাতক্ষীরা ৩৮ বিজিবি ব্যাটেলিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল সরকার মোস্তাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গত ৮ মার্চ বৃহস্পতিবার ও আজ ১১ মার্চ রোববার দুই দিনের জব্দকৃত ১৭ পিস স্বর্ণের বার ও ১৪ কেজি রূপার মূল্য প্রায় ১ কোটি ৩০ লাখ টাকা।

Please follow and like us:
Facebook Comments