সাতক্ষীরায় শিক্ষক-কর্মচারী সংগ্রাম কমিটির বিক্ষোভ সমাবেশ

ক্রাইমবার্তা রিপোর্ট: শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণসহ ১১দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় শিক্ষক কর্মচারী সংগ্রাম কমিটির ঘোষিত কর্মসূচি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সাতক্ষীরা শিক্ষক-কর্মচারী সংগ্রাম কমিটির শিক্ষক-কর্মচারী সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকাল ১১টায় সাতক্ষীরা শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্কে শিক্ষক-কর্মচারী সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিলে সভাপতিত্ব করেন সাতক্ষীরা শিক্ষক কর্মচারী সংগ্রাম কমিটির আহবায়ক অধ্যক্ষ আব্দুর রহমান।
এসময় বক্তব্য রাখেন, সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সভাপতি সাবেক অধ্যক্ষ আবু আহমেদ, অধ্যক্ষ আজিজুর রহমান, অধ্যক্ষ জাফরুল আলম বাবু, অধ্যক্ষ এস এম শহীদুল আলম, অধ্যক্ষ মোবাশ্বেরুল হক জ্যোতি, অধ্যক্ষ বিশ্বাস রফিকুল ইসলাম, অধ্যক্ষ আরিফ বিল্লাহ, অধ্যক্ষ মনিরা বেগম, অধ্যক্ষ লুৎফুন আরা জামান, অধ্যক্ষ এনামুল ইসলাম। এছাড়া বক্তব্য রাখেন, প্রভাষক এস এম কামরুজ্জামান, মোঃ শফিকুল ইসলাম, আরশাদ আলী, ইদ্রিস আলী রবীন্দ্র নাথ কর্মর্কার, মনিরুল ইসলাম, তপন কুমার শীল, রফিকুল ইসলাম, নুর মোহাম্মাদ পাড় প্রমুখ। সমাবেশে বক্তারা শিক্ষকদের ১১ দফা দাবি দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
শিক্ষকদের দাবি সমূহ : শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণ, সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের ন্যায় বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের ৫% বার্ষিক প্রবৃদ্ধি, পূর্ণাঙ্গ উৎসব ভাতা- বাংলা নববর্ষ ভাতা-বাড়ী ভাড়া ও চিকিৎসা ভাতা প্রদান, অনুপাত প্রথা বিলুপ্ত করে সহকারি অধ্যাপক, সহযোগী অধ্যাপক ও অধ্যাপক পদে পদোন্নতি, বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, প্রধান ও সহকারি প্রধান শিক্ষকের বেতন স্কেল সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান ও সহকারি প্রধান শিক্ষকের অনুরূপ প্রদান। শিক্ষক-কর্মচারীদের পূর্বের ন্যায় টাইম স্কেল প্রদান। বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী অবসর সুবিধা বোর্ড ও কল্যাণ ট্রাস্টের মাধ্যমে বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের আর্থিক সুবিধা প্রদানের পরিবর্তে অবিলম্বে পূর্ণাঙ্গ পেনশন চালুকরণ। নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং অনার্স ও মাস্টার্স কোর্সে পাঠদানকারী শিক্ষকসহ বিধিমোতাবেক নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের এমপিওভুক্ত করণ। ইউনেস্কোর সুপারিশ অনুযায়ী শিক্ষাখাতে জিডিপি’র ৬% এবং জাতীয় বাজেটের ২০% বরাদ্দ। বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের জনবল কাঠামো যুগোপযোগীকরণ ও সরকারী প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীদের চাকরি বিধিমালা অবিলম্বে বাস্তবায়ন, শিক্ষা সংশ্লিষ্ট সকল দপ্তরে বেসরকারি শিক্ষকদের ৩৫% প্রেষণে নিয়োগ, কারিগরি শিক্ষা উন্নয়নের লক্ষ্যে একটি কারিগরি ও ভোকেশনার বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন এবং জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০ বাস্তবায়ন ত্বরান্বিতকরণ।

Please follow and like us:
Facebook Comments