ধর্ম অবমাননার অভিযোগে তসলিমা-সুপ্রীতিদে সহ চার জনের বিরুদ্ধে মামলা

ক্রাইমবার্তা রিপোট:  পবিত্র ইসলাম ধর্মের অবমাননার অভিযোগে নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন ও উইমেন চ্যাপ্টারের সম্পাদক সুপ্রীতি ধরসহ চার জনের বিরুদ্ধে ৫৭ ধারায় মামলা করা হয়েছে। বাকি দু’জন হলেন উইমেন চ্যাপ্টারের সুচিষ্মিতা সিমন্তি ও লীনা হক।

বৃহস্পতিবার ঢাকার সাইবার ক্রাইম ট্রাইবুনালে যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ২০০৬ এর ৫৭ ধারায় মামলাটি করা হয় বলে জানা গেছে।

ট্রাইব্যুনাল মামলার বিষয়ে শুনানি নিয়ে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)-এর সাইবার ক্রাইম ইউনিটকে অভিযোগটির বিষয়ে তদন্ত করার আদেশ দিয়েছেন। তবে কত দিনেরে মধ্যে প্রতিবেদন দিতে হবে তা জানাতে পারেননি আইনজীবী।

মামলাটি দায়ের ও শুনানির পর বাদীপক্ষের আইনজীবী হুজ্জাতুল ইসলাম আল ফেসানী জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আইনজীবী জানান, ‘লেখিকা তসলিমা নাসরিন, উইমেন চ্যাপ্টারের সম্পাদক সুপ্রীতি ধর, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সুচিষ্মিতা সিমন্তি ও উপদেষ্টা সম্পাদক লীনা হকের বিরুদ্ধে পবিত্র ইসলামের অবমাননার অভিযোগে দৈনিক আল ইহসান ও মাসিক আল বায়্যিনাতের সম্পাদক আল্লামা মুহম্মদ মাহবুব আলম বাদী হয়ে মামলাটি করেছেন। আমি তার পক্ষে আইনজীবী হিসেবে মামলাটি দায়ের করেছি।’

Sn

মামলা দায়েরের পর শুনানি শেষে ট্রাইবুনালের বিচারক মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিটকে অভিযোগটি তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন।

বাদীর আনা অভিযোগে বলা হয়েছে, ‘উইমেন চ্যাপ্টার নামক ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সুপ্রীতি ধর, সুচিষ্মিতা সিমন্তি ও লীনা হকেরা প্রায়ই পবিত্র দ্বীন ইসলামের বিরুদ্ধে বিদ্বেষমূলক লেখা প্রকাশ করেন। তারই ধারাবাহিকতায় গত ১৭ এপ্রিল বিকেলে তসলিমা নাসরিনের ‘ধর্ষকের কাছে নারীর কোনো ধর্ম নেই’ শীর্ষক একটি নিবন্ধ প্রকাশ করে। ওই নিবন্ধে লেখা হয়, ‘পয়গম্বরও আরব দেশে ইহুদি পুরুষদের মেরে ওদের মেয়েদের নিজের সঙ্গীদের মধ্যে বিতরণ করেছিলেন।’

আইনজীবী জানান, লেখিকার এই বক্তব্যে বাদীর দ্বীনি অনুভূতিতে আঘাত লাগায় তিনি লেখিকা ও সংশ্লিষ্ট ওয়েব সাইটের সম্পাদকদের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেছেন।

Please follow and like us:
Facebook Comments