শেখ হাসিনা ও তার সরকারের প্রতি জনগণের আস্থা বৃদ্ধি পেয়েছে:এমপি রবি

ক্রাইমবার্তারিপোট: বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড ও সাফল্য নিয়ে জনগণের দোড় গোড়ায় নারীদের নিয়ে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বিকালে সদরের ফিংড়ি ইউনিয়নের গাভা দাখিল মাদ্রাসা ময়দানে গাভা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সহ-সভাপতি আব্দুল ওয়াদুদ সরদারের সভাপতিত্বে সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড ও সাফল্য তুলে ধরে উঠান বৈঠকে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা-০২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি। এসময় তিনি বলেন, ‘বর্তমান সরকারকে দেশের ইতিহাসে সব চাইতে সফল রাজনৈতিক সরকার। দেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো একটি গণতান্ত্রিক সরকার ধারাবাহিকভাবে দেশ পরিচালনা করছে। সরকারের ধারাবাহিকতা আছে বলেই অনেকের বিরোধিতার পরও পদ্মা সেতু নির্মাণের কার্যক্রম শুরুর পাশাপাশি বিদ্যুৎ সমস্যার সমাধান হয়েছে। ইতিমধ্যে পদ্মা সেতু দৃশ্যমানও হয়েছে। গ্রাম পর্যায়ে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত হয়েছে। প্রবৃদ্ধি বেড়েছে। তথ্য প্রযুক্তি খাতে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। সব মিলিয়ে সর্বত্র এখন দৃশ্যমান উন্নয়নের ছড়াছড়ি। তিনি রোহিঙ্গা সমস্যা মোকাবেলার পাশাপাশি আশ্রয় ও খাদ্য দিয়ে রোহিঙ্গাদের সহায়তা করার ঘটনাকে সরকারের বড় একটি অর্জন। তিনি বলেন, অশুভ শক্তির চরম বিরোধিতার পাশাপাশি খুন-সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদকে উৎসাহিত করার পরও সরকার জঙ্গি দমনসহ নানা বিষয়ে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিকভাবে সফলতা অর্জন করেছে। বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দন্ড কার্যকর হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের ঘাতকদের দন্ড কার্যকর হচ্ছে। সরকার দুর্নীতি দমনে কার্যকর উদ্যোগ নিয়েছে। সুশাসন প্রতিষ্ঠা পেয়েছে। স্বাস্থ্য, কৃষি, যোগাযোগ ও শিক্ষা খাতে অনেক উন্নতি হয়েছে। গ্রামীণ অর্থনীতি অনেক চাঙ্গা হয়েছে। সমুদ্র জয় হয়েছে। ভারতের সঙ্গে সীমান্ত চুক্তি হয়েছে। সব দেশের সঙ্গেই এখন বাংলাদেশের সুসম্পর্ক। আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটের বিজয়ে শতভাগ আশাবাদী বাংলার জনগণ। দেশের সর্বস্তরের মানুষের বিবেচনায় অসাম্প্রদায়িকতা, শান্তি, উন্নয়ন ও রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার জন্য একমাত্র আওয়ামী লীগই পরীক্ষিত রাজনৈতিক শক্তি। এ ক্ষেত্রে আওয়ামী লীগের বিকল্প আওয়ামী লীগ। বিএনপি স্বাধীনতাবিরোধীদের পাশাপাশি জঙ্গি অপশক্তিকে লালন-পালন করে বলেই মানুষ তাদের কাছে কিছু আশা করে না। মানুষ তাদের দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার সরকারের ওপর জনগণের আস্থা আরও বৃদ্ধি পেয়েছে বলেই আবারো হবে নৌকার বিজয়।’ প্রখমে ফিতা কেটে সাংসদের অনুদানে নির্মিত গাভা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের অজু খানার উদ্বোধন করেন এবং মসজিদে আছরের নামাজ আদায় করেন। উঠান বৈঠকে আরো বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল খায়ের সরদার, মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদিকা জ্যোৎন্সা আরা, জেলা বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি মকসুমুল হাকিম, গাভা আইডিয়াল কলেজের অধ্যক্ষ শিবপদ গাইন, গাভা দাখিল মাদ্রাসার সহ-সুপার মাওলানা মাজহারুল ইসলাম, খুদ্র-নৃগোষ্ঠির সভাপতি মো. মোখলেছুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা মাষ্টার সন্তোষ কুমার দাস প্রমুখ। সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন গাভা দাখিল মাদ্রাসার অফিস সহতারি আব্দুর রাজ্জাক।

Facebook Comments
Please follow and like us: