বাঘারপাড়ায় গণপিটুতিতে এক ব্যক্তি নিহত

তরিকুল ইসলাম তারেক, যশোর: বাঘারপাড়ায় গণপিটুনিতে অজ্ঞাত (৩৮) এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এক বাড়িতে ডাকাতির অভিযোগে   গণপিটুনির শিকার হয়েছিলেন তিনি।
বুধবার দিবাগত গভির রাতে বাঘারপাড়া উপজেলার জহুরপুর ইউনিয়নের মাঝিয়ালি গ্রামে এই ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ নিহত অজ্ঞাত ওই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। তার পরনে কালো জিন্সের প্যান্ট, কালো জ্যাকেট ও লাল-সাদা রঙের গেঞ্জি রয়েছে।
খাজুরা পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই মাসুদুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, বুধবার দিবাগত গভির রাতে বাঘারপাড়া উপজেলার জহুরপুর ইউনিয়নের মাঝিয়ালি গ্রামের মুনসুর আলীর বাড়িতে একদল দুর্বৃত্ত ডাকাতি করছিল। তারা ডাকাতি করার সময় মুনসুর আলীর স্ত্রী হাজেরা বেগমের মাথায় আঘাত করে। এসময় আক্রান্ত পরিবারটির লোকজন চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন ‘ডাকাত ডাকাত’ বলে চিৎকার দিয়ে ছুটে আসে। জনগণের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতরা পালিয়ে গেলেও তাদের মধ্যে একজন ধরা পড়ে। জনতা তাকে পিটুনি দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।
খবর পেয়ে পুলিশ রাতেই নিহত ডাকাতের লাশ উদ্ধার করে। তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন আছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে নিহতের লাশ যশোর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে আনা হয়।
জানতে চাইলে বাঘারপাড়া থানার ইনসপেক্টর (তদন্ত) জানান বলেন. ‘ডাকাতদলে ৩-৪ জন ছিল বলে শোনা যাচ্ছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি ছোরা ও একটি লোহার রড উদ্ধার করেছে।

Please follow and like us:
Facebook Comments