আশাশুনিতে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৭ মন আম বিনষ্ট;

 আশাশুনি:আশাশুনি উপজেলার বুধহাটায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ৭/৮ মন আম বিনষ্ট করা হয়েছে। আম আটক কারীদের সামনে দিয়ে ৫০/৬০ মন আম ব্যবসায়ীর লোকজন লাপাত্তা করে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

উপজেলার সকল ইউনিয়নে ব্যাপক ভাবে আমে কেমিক্যাল মিশিয়ে পাকানো ও রং লোভনীয় করার কাজ করা হচ্ছে। এনিয়ে বৃহস্পতিবার বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় খবর প্রকাশিত হয়েছে। উপজেলা সেনেটারি ইন্সপেক্টর জি এম গোলাম মোস্তফা বৃহস্পতিবার দুপুরে বুধহাটা বাজারের দক্ষিণ পাশে মোশাররফ হোসেনের আম বাগানে অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় কুল্যা গ্রামের আবু সালেহ মোঃ মুছার পুত্র আম ব্যবসায়ী আরিফুল বাগান থেকে শ্রমিকদিয়ে আম পেড়ে আমে কেমক্যিাল ছিটাচ্ছিল। সেনিটারী ইন্সপেক্টর গোলাম মোস্তফা ও সেনেটারি ইন্সপেক্টর সহকারী মোক্তারুজ্জামান স্বপন কেমিক্যাল ও কেমিক্যাল মিশ্রণ যন্ত্রসহ আমগুলো আটক করেন। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অবহিত করা হলে তিনি বাইরে থাকায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) মিজাবে রহমত ঘটনাস্থলে আসেন। কিন্তু তার আসার আগেই আম বিক্রেতা আরিফুল শ্রমিকদের দিয়ে ৫০/৬০ মন আম সরিয়ে ফেলেন। বাকী ৭/৮ মন আম মোবাইল কোর্টে প্রকাশ্য সড়কে গাড়ীর চাকায় পিষ্ট করে বিনষ্ট করা হয়। এসময় শত শত মানুষ সেখানে উপস্থিত ছিলেন। সচেতন মহলের দাবী জব্দ করা আম সরিয়ে নেওয়ার অপরাধে ব্যবসায়ী আরিফুলের বিরুদ্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়া হোক। তাছাড়া এলাকায় হাজার হাজার মন আম এভাবে কেমিক্যাল মিশিয়ে বাজারজাত করা রোধে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে জোর দাবী জানান হয়েছে। সেনেটারী ইন্সপেক্টর গোলাম মোস্তফা জানান, তারা ২/৩ জন থাকায় ব্যবসায়ী আমগুলো সরিয়ে নিয়ে গেলেও কিছু করার ছিলনা।

Facebook Comments
Please follow and like us: