কালিগঞ্জে পল্লী বিদ্যুতের পরিদর্শক সহ ৩ জন হামলার শিকার

  • কালিগঞ্জে পল্লী বিদ্যুতের পরিদর্শক সহ
    ৩ জন হামলার শিকা

ক্রাইম বার্তা ডেক্সঃসাতক্ষীরা জেলার কালিগঞ্জে পল্লী বিদ্যুতের ওয়ারিং পরিদর্শক সহ ৩ কর্মচারী সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছে। থানায় নেতৃত্বদান কারী সহ ৫ জনের বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের। এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। ঘটনাটি উপজেলার বিষ্ণপুর ইউনিয়নে চৌমুহনি বাজার এলাকায় ঘটেছে।
থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, সাতক্ষীরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কালিগঞ্জ জোনাল অফিসে কর্মরত ওয়ারিং পরিদর্শক মামুন শেখ, রবিউল ইসলাম ও সুশান্ত কুমার ২৮ মে বকেয়া লিস্টের কাজ করতে উপজেলার বিষ্ণপুর ইউনিয়নের মুকুন্দপুর চৌমুহনি বাজার এলাকায় যায়। এসময় জনৈক কওছার আলীর মিটারের বিপরিতে বকেয়া ৩ হাজার ৪শ ৪৯ টাকা আদায়ে চেষ্টা করে ব্যার্থ হলে তারই( কওছারের) অনুমতি ক্রমে বিদ্যুতের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেন। ঘটনার সংবাদে বিকাল ৪ টায় এলাকার বহুল বিতর্কীত মামলাবাজ, দূর্নীতিবাজ আবু তালেব সরদার সহ তার দোশররা জমায়েত হয়ে পরিদর্শক মামুন শেখের উপরে হামলা চালায়। আবু তালেবের লোহার রডের আঘাতে মামুন শেখ মারাত্বক যখম হয়। এসময় আবু তালেবের সাথে কওছার আলী, খালেক মোড়ল, যেহের আলী ও যহির ইকবাল পরিদর্শক মামুনকে এলোপাতাড়ি ভাবে পিটিয়ে বেহুশ করে ফেলে। একই সাথে মামুন কে উদ্ধার করতে গেলে ওয়ারিং ম্যান রবিউল ইসলাম ও সুশান্ত কুমারকেও মারপিট করে। বর্তমানে কালিগঞ্জ হাসপাতালে ৩ নং কেবিনে মামুন শেখ চিকিৎসাধীন রয়েছে। সে এ প্রতিনিধিকে জানায়, তাকে শুধু মারপিট করেই খ্যান্ত হয়নি সন্ত্রাসিরা। তার নিকট থাকা আদায়কৃত লক্ষ্যাধিক নগত টাকা, ঘড়ি, মোবাইল ও আংটি ছিনিয়ে নেয়। এঘটনায় কালিগঞ্জ থানায় এজাহার দায়ের করেছে কৃর্তপক্ষ। কালিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ হাসান হাফিজুর রহমান এ প্রসঙ্গে জানান, পল্লী বিদ্যুতের কর্মচারী হামলার শিকারে অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। উল্লেখ্য যে, উপজেলার বিষ্ণপুর ইউনিয়নের মুকুন্দমধুসুধনপুর গ্রামের মৃত আকরাম সরদারের পুত্র কুখ্যাত মামলাবাজ আবু তালেব সরদারের বিরুদ্ধে শিক্ষিকাকে পারপিট, সংখ্যালঘু জয়দেব বিশ্বসকে মারপিট করাসহ অসংখ্য নিরিহ মানুষকে মামলায় ঢুকিয়ে হয়রানির অভিযোগ রয়েছে।

Please follow and like us:
Facebook Comments