জমকালো উদ্বোধনীতে পর্দা উঠলো বিশ্বকাপের

ক্রাইমবার্তা রিপোট: মোহনীয় নৃত্যের পরিবেশনা পাওয়া গেল না। তবে ক্লাসিক্যাল মিউজিকের মূর্ছনায় মোহিত হলেন ফুটবলরসিকরা। তা দিয়েই সবার হৃদয় জয় করলো রাশিয়া। প্রায় ৫০০ নৃত্যশিল্পী, জিমন্যাস্ট ও ট্রাম্পোলিনিস্টের অনন্য প্রদর্শনীতে মুগ্ধ হলো গোটা বিশ্ব। জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে পর্দা উঠলো রাশিয়া বিশ্বকাপ-২০১৮’র।

১৯৮০ সালে অলিম্পিকের পর এটাই রাশিয়ায় সবচেয়ে বড় ক্রীড়াযজ্ঞ।তাই ব্যতিক্রমী উদ্বোধনী অনুষ্ঠান উপহার দিলেন ভ্লাদিমির পুতিন। রাত সাড়ে ৮টায় শুরু হয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। প্রথমেই নজর কেড়ে নেয় লুঝনিকির বর্ণিল সাজ। ব্যাপ্তি ছিল মাত্র ৩০ মিনিট। তবে তাতে আকর্ষণের কমতি ছিল না।

স্টেডিয়ামে উপস্থিত ৮০ হাজার ও টিভি সেটের সামনে বসে থাকা কোটি দর্শককে শুরুতে গান দিয়ে মাতিয়ে তুলেন ব্রিটিশ পপগায়ক রোবি উইলিয়ামস। তার সঙ্গে দেখা মিলল ব্রাজিলের বিশ্বকাপজয়ী তারকা রোনালদোর। সাবেক ফুটবলারদের মধ্যে শুধু ‘দ্য ফেনোমেননই’ ট্রফি হাতে মঞ্চ আলোকিত করার সুযোগ পান।

স্টেডিয়ামে রুশদের পারফরম্যান্সও নজরকাড়া ছিল। মঞ্চ মাতালেন রাশিয়ার তরুণ-তরুণীদের মধ্যে তুমুল জনপ্রিয় আইদা গারিফুল্লিনা। অপেরা সংগীতের মূর্ছনায় দর্শক মাত করেন তিনি। মনোমুগ্ধকর পারফরম করেন আরেক অপেরা শিল্পী প্লাসিতো ডমিনগো।

শুভেচ্ছা বক্তব্য পাঠ করলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তাতে থাকল শান্তির বার্তা। আগত ফুটবলার ও দর্শনার্থীদের নিরাপত্তা এবং আতিথেয়তায় কোনো কমতি রাখেননি বলে নিশ্চিত করলেন তিনি। তাতে সমর্থন জোগালেন ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি ইনফান্তিনো।

সবশেষে আতশবাজির আলোয় উজ্জ্বল হয়ে উঠল মস্কোর আকাশ। পরপরই স্বাগতিক রাশিয়া-সৌদি আরব ম্যাচ দিয়ে শুরু হয় ফুটবল মহাযজ্ঞ।

Facebook Comments
Please follow and like us: