নীলফামারীতে বাস-পিকআপের মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ১৩

ক্রাইমবার্তা রিপোটঃ নীলফামারীর সৈয়দপুরের বাইপাস সড়কে রোববার রাতে ঈদের আনন্দে ঘুরতে যাওয়া একদল তরুণকে বহনকারী পিকআপ ভ্যানে বাসের ধাক্কার ঘটনায় নিহত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩ জনে।

রোববার রাত ১০টার দিকে উপজেলার বাইপাস সড়কের ধলাগাছ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, দিনাজপুরের স্বপ্নপুরী থেকে পিকনিক শেষে বাড়ি ফেরার পথে ২৭ তরুণের দলটি দুর্ঘটনায় পড়ে। সদর উপজেলার ধোপডাঙ্গা ও নতিবাড়ি চৌরঙ্গী গ্রামের বাসিন্দা এ তরুণদের বয়স ১৮-২২ বছর।

সৈয়দপুর থানার ওসি শাহাজাহান পাশা বলেন, প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি নীলফামারী সদরের ভবানীগঞ্জহাট এলাকার একদল তরুণ ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে রোববার সকালে পিকআপ (নীলফামারী-ন-১১-০০০৭) ভাড়া করে বিভিন্ন স্থান পরিদর্শন করেন।

সর্বশেষ দিনাজপুরের স্বপ্নপুরী পিকনিক স্পট ঘুরে তারা রাতে নিজ এলাকায় ফিরছিলেন। পথে রাত ১০টার দিকে সৈয়দপুরের বাইপাস সড়কে ধলাগাছ এলাকায় তাদের পিকআপটিকে ধাক্কা দেয়। পরে ঢাকাগামী নাইট কোচটি ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় বলে উল্লেখ করেন ওসি।

ওসি জানান, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আট তরুণের লাশ উদ্ধার করে। এ ছাড়া আহতাবস্থায় ১৪ জনকে উদ্ধার করে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে পাঠানো হয়। পথে আরও দুজন মারা যান। পরে অবস্থার অবনতি হলে আহতদের মধ্যে ছয়জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রংপুর মেডিকেলে স্থানান্তর করা হয়।

সৈয়দপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অশোক কুমার পাল জানান, তিনি উপস্থিত থেকে নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে সৈয়দপুর থানায় নিয়েছেন। পরে মরদেহগুলো নীলফামারী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে ঘটনাস্থল ও হাসপাতাল পরিদর্শন করেছেন নীলফামারী জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খালেদ রহীম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আশরাফ হোসেন, সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মোকসেদুল মোমিন।

Please follow and like us:
Facebook Comments