নেতাকর্মীদের গ্রেফতার বন্ধে জরুরি ব্যবস্থা চান হাসান সরকার

ক্রাইমবার্তা রিপোটঃ  গাজীপুর: সরকার প্রশাসন দিয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলহাজ হাসান উদ্দিন সরকার।
বৃহস্পতিবার আঞ্চলিক নির্বাচন ও রিটার্নিং কর্মকর্তা রকিব উদ্দিন মন্ডলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে তিনি এ অভিযোগ করেন। এসময় তিনি নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের ঘটনা তদন্ত ও জরুরি ব্যবস্থা নিতে রিটার্নিং কর্মকর্তার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।
রিটার্নিং কর্মকর্তাকে হাসান সরকার বলেছেন, সরকার স্থানীয় প্রশাসন দিয়ে তার দলের নেতাকর্মীকে হয়রানি ও গ্রেফতার করছে। ৭-৮ জন নেতাকর্মীকে বুধবার গ্রেফতার করা হয়েছে। এতে তার প্রচার-প্রচারণায় ব্যহত হচ্ছে বলে জানান।
হাসান সরকারের অভিযোগ আমলে নিয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা জেলা প্রশাসন, স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন ও প্রধান নির্বাচন কমিশনের কাছে তদন্তের জন্য জরুরিভাবে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সুপারিশ করেন।
সাংবাদিকদের রিটার্নিং কর্মকর্তা বলেন, ‘গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন সুষ্ঠু করতে যা যা করা প্রয়োজন নির্বাচন কমিশন তা সবই করবে।’
হাসান উদ্দীন সরকারের অভিযোগের বিষয়ে রকিব উদ্দিন বলেন, ‘আমরা নির্বাচনের কমিশনের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্টদের কাছে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে লিখিত সুপারিশ পাঠিয়েছি। তবে কাউকে যাতে হয়রানি না করা হয় সে বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষদের সঙ্গে কথা বলতে হবে।’
সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন সুষ্ঠু করতে নির্বাচন কমিশন বদ্ধ পরিকর। আমরা সুন্দর ও সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দিতে কাজ করছি।’
নির্বাচনে আচরণবিধি লঙ্ঘনের বিষয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা বলেন, আচরণবিধি লঙ্ঘন যে শুধু প্রার্থীদের তা নয়, এটি যেকোনও সরকারি কর্মকর্তারও হতে পারে। সেক্ষেত্রে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
তিনি বলেন, ‘গতকাল নির্বাচন যাতে সুষ্ঠু হয় সেজন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন সংস্থা নিয়ে মিটিং করা হয়েছে। এবং নির্বাচন কমিশন পক্ষ থেকে বলা হয়েছে নির্বাচন চলাকালীন সময় কাউকে যেন কোনও ধরনের হয়রানি না করা হয়।’

Please follow and like us:
Facebook Comments