দুর্নীতি প্রতিরোধে সাতক্ষীরায় র‌্যালি ও গণশুনানি অনুষ্ঠিত” জেলা প্রশাসকসহ সরকারি কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ

ক্রাইমবার্তা ডেস্করিপোটঃ

গণশুনানীতে জেলা প্রশাসকসহ সরকারি কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ : সমাধানের অঙ্গীকার

আব্দুর রহমান: ‘দুর্নীতি ও মাদকের বিরুদ্ধে সরকার জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছে। তাই দুর্নীতি দমন কমিশন কারও রক্তচক্ষুকে ভয় করে না’ বলে মন্তব্য করেছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের কমিশনার (তদন্ত) এএফএম আমিনুল ইসলাম। মঙ্গলবার (৩ জুলাই) সাতক্ষীরা শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্কে দুর্নীতি দমন কমিশনের উদ্যোগে গণশুনানীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। ‘জানবো জানাবো, দুর্নীতি রুখবো’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে র‌্যালী পরবর্তীতে গণশুনানিতে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইফতেখার হোসেনের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দুদক কমিশনার এএফএম আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘সরকারি সেবা প্রদানে সহযোগিতাপূর্ণ মনোভাব তৈরি করতে হবে। সাধারণ সেবা গ্রহীতা ও প্রদানকারীদের মধ্যে সমন্বয় বিশ্লেষণ করতে হবে। কোন অবস্থাতেই যেন বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা পিছিয়ে না পড়ে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে লালন করে দেশকে দুর্নীতিমুক্ত করতে হবে। আমাদের দেশে টিআর-কাবিখা, জিআরসহ যেসকল প্রকল্প চলমান রয়েছে অধিকাংশ প্রকল্পগুলো ভূয়া কাগজপত্র সাবমিট করা হয়। সরকারি অফিসের অনিয়ম-দুর্নীতি প্রতিরোধে কর্মকর্তাদের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে। তথ্য অধিকার আইন ২০০৯ বাস্তবায়নে সকলকে আন্তরিক হওয়ার আহবান জানান তিনি। দুর্নীতি প্রতিরোধে সকলকে সচেতন হতে হবে। দেশে সৎ মানুষ গড়তে এবং সততার দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে ‘সততা সংঘ’ গঠন ও সততার বীজ বুনতে ‘সততা স্টোর’ চালু করা হয়েছে। আগামীতে দেশে সৎ কর্মকর্তা তৈরি করতে পারলে দুর্নীতি অনেক কমে যাবে। দেশের সরকারি দপ্তরসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তি পর্যায়ের দুর্নীতি থেকে বেরিয়ে আসার জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করে দুদক কমিশনার এএফএম আমিনুল ইসলাম বলেন দেশকে এগিয়ে নিতে হলে দুর্নীতিবাজদের ধরিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি নিজেদের দুর্নীতির বাইরে থাকতে হবে। দুর্নীতি করা এবং দুর্নীতিতে সহযোগিতা করা একই ধরনের অপরাধ।’


গণশুনানী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা পুলিশ সুপার মো. সাজ্জাদুর রহমান, দুদক ঢাকার পরিচালক মো. মনিরুজ্জামান, যশোরের উপ-পরিচালক ও খুলনা বিভাগীয় ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মো. আব্দুল গফফার, সমন্বিত জেলা কার্যালয় খুলানার উপ-পরিচালক মো. আবুল হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হোসেন ও সচেতন নাগরিক কমিটির সভাপতি কিশোরী মোহন সরকার। এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) তরফদার মাহমুদুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেরিনা আক্তার, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার তহমিনা খাতুন, বিআরটিএ সাতক্ষীরা সার্কেলের সহকারী পরিচালক তানভীর আহমেদ চৌধুরী, সাতক্ষীরা সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ মো. আজিজুর রহমান, সাতক্ষীরা সরকারি কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. আবুল কালাম, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা তারাময়ী মুখার্জী, ফিফা রেফারী তৈয়েব হাসান বাবু, সাতক্ষীরা সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ (অব.) ড. দিলারা বেগম, প্রফেসর শেখ আব্দুল ওয়াদুদ, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কোহিনুর ইসলাম, প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক কল্যাণ ব্যানার্জী, জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি জিয়াউদ্দিন আহমেদ, সদস্য আব্দুর রব ওয়ার্ছী, ডা. আবুল কালাম বাবলা, মো. আব্দুর রহমান, মরিয়ম মান্নান, মুর্শিদা আখতার, সমাজসেবা কর্মকর্তা মো. রোকনুজ্জামান প্রমুখ।
গণশুনানীতে উপজেলা ভূমি অফিস, সাব-রেজিস্ট্রী অফিস, উপজেলা সেলেটমেন্ট অফিস, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, উপজেলা সমাজসেবা অফিস, পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি অফিস, উপজেলা সমবায় অফিস, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার অফিস, উপজেলা হিসাবরক্ষণ অফিস, উপজেলা প্রাথমিক/ মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস, উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিস, আঞ্চলিক পাসপোর্স অফিস, বিআরটিএ সাতক্ষীরা সার্কেল, রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাংকসহ অন্যান্য সরকারি অফিসের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে সরাসরি অভিযোগ উত্থাপন করেন এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা তাদের প্রশ্নের জবাব দেন এবং দ্রুত তিন, পাঁচ ও এক মাসের মধ্যে মধ্যে সমস্যা সমাধানের অঙ্গীকার করেন।

—–0———-

‘জানবো জানাবো, দুর্নীতি রুখবো’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে দুর্নীতি প্রতিরোধে সাতক্ষীরায় র‌্যালী ও গণশুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে। দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এর আয়োজনে মঙ্গলবার সকালে সাতক্ষীরা সদর উপজেলা পরিষদ থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়। র‌্যালীটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সাতক্ষীরা আব্দুর রাজ্জাক পার্কে গণশুনানিতে মিলিত হয়। সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইফতেখার হোসেনের সভাপতিত্বে উক্ত গণশুনানিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, দুদক কমিশনার এ.এফ.এম আমিনুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার সাজ্জাদুর রহমান, পৌর মেয়র আলহাজ্ব তাজকিন আহমেদ চিশতি, দুদক ঢাকার পরিচালক মনিরুজ্জামান, যশোরের উপ-পরিচালক ও খুলনা বিভাগীয় ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মোঃ আব্দুল গফফার, সমন্বিত জেলা কার্যালয় খুলানার উপ-পরিচালক মোঃ আবুল হোসেন প্রমুখ।

গণশুনানিতে সাতক্ষীরা সদর উপজেলা ভূমি অফিস, সাবরেজিষ্ট্রি অফিস, সেটেলমেন্ট অফিসসহ সদর উপজেলার ১৪টি সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন। গণশুনানিতে এ সময় ভুক্তভোগী সাধারণ জনগণ তাদের বিভিন্ন দুর্ভোগের কথা সেখানে তুলে ধরেন।

Facebook Comments
Please follow and like us: