অভয়নগরের ৪ মাদরাসা ছাত্রীর সাফল্যগাঁথা : স্কলারশীপসহ চট্টগ্রামের এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেনে চান্স!

প্রভাষক বি.এইচ.মাহিনী, অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি: স্কুল-কলেজের ত্রি-রতœ নয়, এবার একসাথে চার রতেœর সন্ধান মিললো অভয়নগরের নওয়াপাড়া পৌরসভার একমাত্র ¯œাতকোত্তর মাদরাসা গাজীপুর রউফিয়া কামিল (মাস্টার্স) মাদরাসায়। এ প্রতিষ্ঠান থেকে এবার একসাথে ৪ মেধাবী ছাত্রীর চান্স হয়েছে আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থা কর্তৃক পরিচালিত চট্টগ্রামের এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেনে। ভাগ্যবতী এ ৪জন শিক্ষার্থী হলো নওয়াপাড়া পৌরসভার জাফরপুর গ্রামের আরিফা, গাজীপুর গ্রামের রিক্তা, শারমিন ও খাদিজা খাতুন।

গাজীপুর রউফিয়া কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাও. আব্দুল ওয়াদুদ জানান, এক সাথে ৪জন ছাত্রীর এমন একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা কর্তৃক পরিচালিত বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কলারশীপ নিয়ে চান্স পাওয়া অত্র মাদরাসার জন্য বিরল অর্জন। ইতিপূর্বে ঢাকা, রাজশাহী, ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে আমাদের ছাত্র-ছাত্রী চান্স পেয়ে অনার্স-মাস্টাস, এমফিল-পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করলেও একসাথে ৪ ছাত্রী বৃত্তিসহ চান্স পাওয়ার ঘটনা এই প্রথম।

স্কলারশীপ পাওয়া ছাত্রী রিক্তা খাতুন জানায়, আমি দাখিলে (এসএসসি) এ প্লাস ও আলিমে জিপিএ ৪.৩৬ পেয়ে চান্স পেয়েছি। নিয়মিত অধ্যাবসায়, বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া শিক্ষকদের সার্বিক তত্ত্বাবধান, অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষের পরামর্শ ও পিতামাতার দোয়া ও সহযোগীতায় আমাদের এ সাফল্য। আমার অপর বন্ধুরা (যারা চান্স পেয়েছে) তারাও ভর্তি পরীক্ষা ও ভাইভায় কৃতীত্বের স্বাক্ষর রেখে বৃত্তিসহ উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পেয়েছে।

মাদরাসার অধ্যাপক ড. মো. আমিনুল ইসলাম ও প্রভাষক বি এইচ মাহিনী জানান, আমাদের মাদরাসা এ বছর জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহে সেরা হওয়ার গৌরব অর্জন করে ক্রেস্ট ও সম্মাননা পেয়েছে। আমাদের অধ্যাপক ড. আমিন ও বছর জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষক হওয়ার গৌরব অর্জন করেছেন। সর্বশেষ আমাদের ৪ ছাত্রীর একসাতে চান্স পাওয়া আমাদের প্রাপ্ত সম্মাননাকে আরও সমৃদ্ধ করেছে। আমাদের প্রতিষ্ঠানকে করেছে ঋদ্ধ। শিক্ষাবর্ষের শুরু থেকে মেধাবীদের জন্য বিশেষ পাঠদান, বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি সংক্রান্ত তথ্যদান, আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর শিক্ষাদান ও সমসাময়িক বিভিন্ন বিষয়ে পঠন-পাঠনই প্রতিবছর আমাদের শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পেতে সুবিধা প্রদান করে।

চার ছাত্রীর এমন সাফল্যগাঁথায় শিক্ষার্থী, শিক্ষক, অভিভাবকসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে অশেষ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন মাদরাসা পরিচালনা পরিষদ।

Facebook Comments
Please follow and like us: