দেশে আন্দোলন হওয়ার মতো পরিস্থিতি নেই তবে অশুভ খেলা চলছে:কাদের

ক্রাইমবার্তা রির্পোটঃ  আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশে এই মুহূর্তে আন্দোলন হওয়ার মতো বস্তুগত পরিস্থিতি নেই। এই মুহূর্তে নানা খেলা চলছে। নানা অশুভ খেলা চলছে।

আজ বুধবার ঢাকার আজিমপুর এতিমখানায় বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৮৮তম জন্মবার্ষিকীর এক অনুষ্ঠানে ওবায়দুল কাদের এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি কোটা আন্দোলনে ভর করে এখন শিক্ষার্থীদের নিরাপদ সড়কের ওপর ভর করেছে। শিশুরা বাড়ি ফিরে গেছে। নিরাপদ সড়ক আন্দোলনে ভর করেও যখন সফলতা আসেনি, তখন বিদেশিদের দ্বারে দ্বারে ধরনা দিয়ে নালিশ করছে। তিনি বলেন, ‘এই পার্টি আবারও প্রমাণ করল, এটা বিএনপি-বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট পার্টি নয়, এটা বাংলাদেশ নালিশ পার্টি।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, যাদের নিজের আন্দোলন করার সক্ষমতা নেই, ব্যর্থ হয়ে বিদেশিদের কাছে দেশের কথা বলছে, এরা দেশপ্রেমী নয়। তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগের ৪৬ জন নেতা-কর্মী আহত। ছাত্রছাত্রীদের ব্যাগে শিলা–পাথর ছিল না। অরাজনৈতিক আন্দোলনে যারা রাজনৈতিক অনুপ্রবেশ ঘটিয়েছে, তারা এই পাথর বহন করেছে। মিরপুর থেকে হাজার হাজার স্কুলড্রেস, ব্যাগ সংগ্রহ করেছে।

আন্দোলনে অনুপ্রবেশের বিষয়ে মন্ত্রী কাদের বলেন, নীলক্ষেত থেকে ভুয়া পরিচয়পত্র সংগ্রহ করে ছাত্রছাত্রীদের আন্দোলন নোংরা রাজনৈতিক আন্দোলনের দিকে নিয়ে যাওয়ার অশুভ এজেন্ডাকে তিনি নিন্দা করেন। ধিক্কার জানান। তিনি আরও বলেন, আরাফাত নামের আওয়ামী লীগের এক কর্মীকে বিদেশে পাঠাতে হচ্ছে। তাঁর একটি চোখ সম্পূর্ণভাবে নষ্ট হয়ে গেছে।

গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অপপ্রচার করা হয়েছে দাবি করে কাদের বলেন, কোনো কোনো মিডিয়ায় এবং কোনো কোনো কাগজে এবং ফেসবুকে অপপ্রচার করা হয়েছে। আরাফাতকে আন্দোলনরত ছাত্র বলা হয়েছে। তাঁর চোখ উপড়ে ফেলা হয়েছে। আরাফাত যে আওয়ামী লীগের কর্মী, সেটা বলা হয়নি।

বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব সম্পর্কে কাদের বলেন, বেগম ফজিলাতুন্নেছা ছিলেন সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরণার উৎস। সাহসের উৎস। বেগম মুজিব সহধর্মিণী ছিলেন বলে শেখ মুজিব বঙ্গবন্ধু হয়েছিলেন। এ কথা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই।

অনুষ্ঠান শেষে গরিব ও দুস্থদের মধ্যে খাবার ও বস্ত্র বিতরণ করা হয়।

Facebook Comments
Please follow and like us: