ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী প্রেমিক-প্রেমিকার আত্মহত্যা

ক্রাইমবার্তা ডেস্করিপোট:  কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) শিক্ষার্থী প্রেমিক যুগলের একজন গলায় ফাঁস এবং অপরজন ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

বৃহষ্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় প্রেমিকা ইবির মাস্টার্স শেষ বর্ষ ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের ছাত্রী এবং একই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রফেসর আশরাফুল আলমের মেয়ে হেনা ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেন।

এ সংবাদ শোনার পর কুষ্টিয়া শহরের পিয়ারাতলার একটি ছাত্রবাসে থাকা ইবি ছাত্র হেনার সহপাঠী ও প্রেমিক চুয়াডাঙ্গার রোকনুজ্জামান রোকন রাত সাড়ে ৮টার দিকে সদর উপজেলার মতি মিয়ার রেলগেট নামক স্থানে পোড়াদহ থেকে ছেড়ে যাওয়া গোয়ালন্দগামী সাটল ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর মাহবুবর রহমান জানান, বৃহষ্পতিবার সন্ধ্যায় আমাদের সহকর্মী প্রফেরস আশরাফুল আলমের মেয়ে হেনা ঝিনাইদহের বাসায় গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেন।

এর দুই ঘণ্টা পরে সংবাদ পাই একই বিভাগ ও বর্ষের ছাত্র রোকনুজ্জামান ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এ ব্যাপারে খোঁজ নিয়ে সহপাঠীদের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারি, নিহত ওই শিক্ষার্থীর মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। তবে হঠাৎ দু’জনই কী কারণে এমন আত্মঘাতি সিদ্ধান্ত নিলেন সে বিষয়ে এখনও স্পষ্ট কোন ধারণা পাওয়া যায়নি।

প্রক্টর আরও জানান, নিহত রোকনুজ্জামান বিভাগের অনার্সে ১ম মেধাস্থান অর্জন করে এবং মাস্টার্সের রেজাল্টও একই।

পোড়াদহ জিআরপি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল আজিজ জানান, কুষ্টিয়ার সদর উপজেলার মতি মিয়া রেলগেট নামক এলাকায় পোড়াদহ থেকে ছেড়ে যাওয়া গোয়ালনন্দগামী ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে এক যুবক আত্মহত্যা করেছে।

সংবাদ পেয়ে রেল পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে।

Facebook Comments
Please follow and like us: