ডিসেম্বর ১৪, ২০১৮
সাতক্ষীরা-১ আসনে নির্বাচনী গনসংযোগ চালানোর সময় আ’লীগের হামলায় বিএনপি প্রার্থী হাবিবসহ ১০ জন আহত

ক্রাইমবার্তা রিপোটঃসাতক্ষীরাঃসাতক্ষীরা-১ আসনের কলারোয়ায় হেলমেটধারীদের হামলায় বিএনপি প্রার্থী হাবিবুল ইসলাম হাবিবসহ সাতজন আহত হয়েছেন।

আহতদের মধ্যে উপজেলা বিএনপি সভাপতি অধ্যাপক বজলুর রহমান, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মমতাজুল ইসলাম চন্দন এবং দুজন সাংবাদিক রয়েছেন।

আহতরা হলেন জেলা বিএনপি নেতা আশরাফ হোসেন, দৈনিক নোয়াপাড়া ও দৈনিক সুপ্রভাতের সাংবাদিক তাজউদ্দিন রিপন ও ফারুক হোসেন রাজ এবং তাকদির রহমান রুবেল। আহতদের কলারোয়া ও সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে কলারোয়া উপজেলা সদরে নেতাকর্মীদের নিয়ে ধানের শীষ প্রতীকের লিফলেটসহ গণসংযোগ করছিলেন হাবিব। এ সময় পেছন দিক থেকে লাটিসোঁটা, লোহার রড নিয়ে তাদের ওপর হামলা করে হেলমেটধারী কয়েক যুবক। মারপিটে বিএনপির প্রবীণ নেতা অধ্যাপক বজলুর রহমান মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। এরপরই হাবিবসহ অন্যরা আহত হন।

বিএনপি দাবি করেছে আওয়ামী লীগের কয়েকজন ব্যক্তি কলারোয়া থানার কাছে পুলিশের উপস্থিতিতে এই হামলা চালিয়েছে। এমনকি কাছেই উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ সভাপতি ফিরোজ আহমেদ স্বপন। এ হামলার জন্য তিনিই দায়ী বলে জানান হাবিব।

কলারোয়া থানার ওসি মারুফ আহম্মদ জানান, তিনি এ ধরনের কোনো ঘটনার খবর শোনেননি। তবে উপজেলা চেয়ারম্যান ফিরোজ আহমেদ স্বপন বলেন ‘শুনেছি তারা নিজেরা মারামারি করেছে। এর সঙ্গে আমাদের দলের কোনো সম্পর্ক নেই’।

এদিকে এর আগে ধানের শীষের প্রার্থী হাবিবুল ইসলাম হাবিব তার বাড়ির আঙিনায় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন। এ সময় তিনি বলেন, তার নেতাকর্মীরা স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করতে পারছেন না। তাদের প্রচার মাইক ভেঙে দেওয়া হচ্ছে। তাদের গ্রেফতার করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, ধানের শীষ প্রতীকের লিফলেট টানাতে দিচ্ছে না। লিফলেট ছিঁড়ে ফেলা হচ্ছে। বিষয়টি রিটার্নিং অফিসার ও পুলিশকে জানিয়েও কোনো লাভ হয়নি।

—0——

ক্রাইমবার্তা রিপোটঃসাতক্ষীরাঃসাতক্ষীরা-১ আসনের বিএনপি প্রার্থী কেন্দ্রীয় নেতা হাবিবুল ইসলাম হাবিবের নির্বাচনী প্রচারনা চালানোর সময় কলারোয়া বাজারে আওয়ামীলীগ নেতা-কর্মীরা হামলা চালিয়েছে।

এতে  তিনিসহ ১০ জন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার দুপুরে কলারোয়া থানা থেকে মাত্র ১’শ গজ দূরে বল্ডফিল্ড সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। এর মধ্যে চার জনের অবস্থা আশংকাজনক। তাদেরকে সাতক্ষীরা সদর ও কলারোয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতরা হলেন, বিএনপি প্রার্থী ও কেন্দ্রীয় বিএনপির প্রকাশনা সম্পাদক হাবিবুল ইসলাম হাবিব, কলারোয়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি বজলুর রহমান, সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রদলের সাধারন সম্পাদক মমতাজুল ইসলাম চন্দন, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আশরাফ হোসেন, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি তাওফিকুর রহমান সনজু, পৌর কৃষকদলের সভাপতি বিএম সিরাজ, বিএনপি কর্মী রুহুল আমিন রুুবেল ও উপজেলা যুবদল সহ-সভাপতি মোজাম হোসেন।

এছাড়া পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় স্থানীয় সাংবাদিক তাজ উদ্দীরন রিপনকে পিটিয়ে জখম করেছে তারা

বিএনপি প্রার্থী হাবিবুল ইসলাম হাবিব জানান, কলারোয়া বাজারের বল্ডফিল্ড সংলগ্ন এলাকায় গণসংযোগকালে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ফিরোজ আহমেদ স্বপনের নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ ও যুবলীগ নেতা কর্মীরা এ হামলা চালায়।এ ঘটনায় আমি ও আমার সমর্থকেরা আহত হয়েছে।

ফিরোজ আহমেদ স্বপন জানান, আমার নেতৃত্বে হামলা হয়েছে এটা সঠিক নয়।এটা মিথ্যা ও বানোয়াট।বিএনপির আভ্যন্তরীন দ্বন্দে এ ঘটনা ঘটেছে।

কলারোয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মারুফ আহমেদ জানান, এ ঘটনার কথা শুনেছি।এ ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কেউ কোন অভিযোগ দেননি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


Thia is area 1

this is area2