আগস্ট ১১, ২০১৯
ঈদে সন্তানের নতুন জামা-কাপড় কেনা নিয়ে কালিগঞ্জে গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ!

ক্রাইমবার্ত রিপোট: সাতক্ষীরা:  ঈদে বাচ্চাদের নতুন জামা-কাপড় কেনা ও পারিবারিক কলহের জের ধরে কালিগঞ্জের পল্লীতে মনিরা খাতুন (২৬) নামে এক সন্তানের জননীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। তিনি উপজেলার মৌতলা ইউনিয়নের পরামনন্দকাটি গ্রামের কেরামত আলী খানের মেয়ে ও মৌতলা গ্রামের শেখ বাহাউদ্দিনের স্ত্রী। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার দিবাগত রাতে উপজেলার মৌতলা গ্রামে।
থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ১০ বছর পূর্বে মৌতলা গ্রামের মৃত আব্দুর রশিদের ছেলে শেখ বাহাউদ্দিনের (৪০) সাথে পাশর্^বর্তী পরমানন্দকাটি গ্রামের কেরামত আলী খানের মেয়ে মনিরা খাতুন (২৬) এর বিয়ে হয়। বিথী সুলতানা (৬) নামে তাদের একটি মেয়ে রয়েছে। বিয়ের পর থেকে তাদের মধ্যে কলহ চলছিল। একপর্যায়ে শনিবার দিবাগত রাতে ঝগড়া শুরু হলে স্বামী বাহাউদ্দিন মনিরা খাতুনকে পিটিয়ে হত্যা করে বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। রবিবার (১১ আগস্ট) সকাল ৯ টার দিকে স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে উপ-পরিদর্শক চিন্ময় মন্ডল ঘটনাস্থলে যেয়ে মৃতদেহের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেছেন।
ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে উপ-পরিদর্শক চিন্ময় মন্ডল জানান, নিহত গৃহবধূর দু’পায়ের হাটুর উপরে, পিঠে ও মুখে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এছাড়া মেয়ে বীথি সুলতানার শরীরেও আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে জানান তিনি।
শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এব্যাপারে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল।

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


Thia is area 1

this is area2