আগস্ট ২৫, ২০১৯
নেতাকর্মীদের মনোবল চাঙ্গা করতে বিএনপির নানা উদ্যোগ

জাফর ইকবাল : কারাবন্দী দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনের পাশাপাশি নেতাকর্মীদের মনোবল চাঙ্গা রাখতে নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বিএনপি। ঈদের আগে বেগম জিয়ার মুক্তির দাবিতে অনুষ্ঠিত বিভাগীয় সমাবেশগুলোতে নেতাকর্মীদের উপস্থিতি ছিল লক্ষ্যণীয়। সেই উৎসাহ-উদ্দীপনাকে ধরে রাখতেই বিএনপির এই উদ্যোগ। এরই মধ্যে রাজধানীসহ ঢাকার বাইরে কিছু কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে। জানা গেছে, আগামী মাসে দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালনকে কেন্দ্র করে সারাদেশে সমাবেশ, র‌্যালি ও আলোচনা সভা অব্যাহত রাখতে চায় কেন্দ্রীয় বিএনপি। রাজধানীতে বড় আকারে সমাবেশ ও র‌্যালি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটি। গতকাল শনিবার বিকেলে দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকেও এ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। বৈঠকে স্কাইপে লন্ডন থেকে যাগ দেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।
বিএনপির একাধিক নেতা জানান, নেতাকর্মীদের মনোবল চাঙ্গা করতে নানা উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল- বিএনপি। তৃণমূলসহ কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করতে একগুচ্ছ পরিকল্পনা নিয়ে মাঠে নামছে দলটি। আগামী ১ সেপ্টেম্বর দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী সামনে রেখে নেতাকর্মীদের দলীয় কর্মকা-ে সক্রিয় করতে চাইছে দলের হাইকমান্ড। এ লক্ষ্যে রাজধানীসহ সারা দেশে ব্যাপক শোডাউনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। সেপ্টেম্বরে বিভাগের পর বড় জেলাগুলোতে সমাবেশ করা হবে। রাজনৈতিক কর্মসূচির পাশাপাশি ডেঙ্গু সচেতনতা, বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ানোসহ সামাজিক কর্মকাণ্ডে নেতাকর্মীদের সম্পৃক্ত করার মধ্য দিয়ে তাদের উজ্জীবিত করা হবে।
সূত্র মতে, সাংগঠনিক দুর্বলতার কারণে দীর্ঘদিন যেসব এলাকায় রাজনৈতিক কর্মকা- নেই সেসব জায়গায় নেতৃত্ব পরিবর্তন করা হবে। দলীয় কর্মকাণ্ডে গতি আনতে যোগ্য, ত্যাগী নেতাদের শীর্ষ নেতৃত্বে আনার সিদ্ধান্ত হয়েছে। সম্প্রতি বেশ কয়েকটি জেলায় নতুন করে কমিটি গঠন করা হয়েছে। তাদেরকে দ্রুত তৃণমূল পর্যায়ে কমিটি সম্পন্ন করতে নির্দেশ দিয়েছে হাইকমান্ড।
এছাড়া নেতাকর্মীদের চাঙ্গা রাখতে বিগত আন্দোলনে মামলা-হামলাসহ নানা কারণে যেসব নেতাকর্মী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তাদের সরাসরি সহযোগিতা করা হবে। তাদের মনোবল ফিরিয়ে আনতে ইতিমধ্যে কাজ শুরু হয়েছে। নিহতের পাশাপাশি আহত ও নির্যাতিত নেতাকর্মীদের তালিকা হালনাগাদ করা হচ্ছে। সূত্র মতে, কেন্দ্রীয় নেতারা সারা দেশ সফর করবেন। সব মিলিয়ে নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করার লক্ষ্যেই সার্বিক পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছে বিএনপি হাইকমান্ড।
জানতে চাইলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, দেশে কোনো গণতন্ত্র নেই। স্বৈরাচার সরকার বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের দমনে নির্যাতন চালিয়ে আসছে। লাখ লাখ নেতাকর্মীর নামে মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছে। সর্বশেষ বিগত সংসদ নির্বাচনে ভোট ডাকাতির কারণে নেতাকর্মীদের মধ্যে এক ধরনের হতাশা তৈরি হয়েছে। তিনি বলেন, নেতাকর্মীদের মনোবল চাঙ্গা করতে আমরা কাজ করছি। এ লক্ষ্যে নানা উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। শত প্রতিকূলতা কাটিয়ে নেতাকর্মীরা আবারও উজ্জীবিত হয়ে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে ঝাঁপিয়ে পড়বে বলে আশা করি।
বিএনপির একাধিক নীতিনির্ধারক জানান, এই মুহূর্তে সরকারবিরোধী বড় ধরনের কোনো কর্মসূচি নেই। ইস্যুভিত্তিক কর্মসূচির মধ্য দিয়ে নেতাকর্মীদের হতাশা দূর করাই মূল টার্গেট। চেয়ারপার্সনের কারামুক্তির অংশ হিসেবে বিভাগীয় শহরে সমাবেশ হলেও এর মূল উদ্দেশ্য নেতাকর্মীদের রাজনৈতিক কর্মকা-ে সক্রিয় করা। ঈদের আগে তিন বিভাগে সমাবেশের মাধ্যমে তার প্রমাণ মিলেছে। তাই বাকি বিভাগগুলোতে দ্রুত সমাবেশ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। সেপ্টেম্বরের মধ্যেই চেষ্টা করব এসব সমাবেশ শেষ করার। শুধু বিভাগ নয়, পুরনো যেসব বড় জেলা রয়েছে সেখানেও আমরা সমাবেশ করার চিন্তাভাবনা করছি।
তারা বলেন, আগামী ১ সেপ্টেম্বর দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত নানা আয়োজনে তা পালন করা হবে। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আমাদের মূল লক্ষ্য নেতাকর্মীদের সক্রিয় করা। এর অংশ হিসেবে রাজধানীসহ সারা দেশে ব্যাপক শোডাউনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। এসব র‌্যালিতে নেতাকর্মীদের ব্যাপক উপস্থিতি নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট ইউনিটগুলোকে বিশেষ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।
সূত্র মতে দলের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে প্রস্তুতি শুরু করেছে বিএনপি। দলের স্থায়ী কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী সেপ্টেম্বরকে অনেকটা প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর মাস হিসেবেই বেছে নিয়েছে বিএনপি। এরইমধ্যে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে পোস্টার ছাপানোর কাজ শেষ হয়েছে। দলের চেয়ারপার্সনের মিডিয়া উইং সদস্য শায়রুল কবির খান জানান, স্থায়ী কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়টিকে সামনে রেখে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হবে।
বিএনপির দায়িত্বশীল নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার পর এবারই প্রথম আড়ম্বরভাবে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করবে বিএনপি। এক্ষেত্রে কারাগারে থাকা খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়টিকেই প্রাধান্য দেয়া হবে। ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজনের মধ্যে দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মাজার জিয়ারত, কেন্দ্রীয়ভাবে র‌্যালির আয়োজন রাখা হয়েছে। এছাড়া, ২ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে আলোচনা সভা। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীসহ সারাদেশেই বিশেষ পোস্টার লাগানো হবে।
এদিকে, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কয়েকদিন আগে আগামী ২৮ আগস্ট রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন বিষয়ে গোলটেবিল আয়োজন করবে বিএনপি। দলটির বিদেশ বিষয়ক কমিটি এরইমধ্যে তাদের যাবতীয় কার্যক্রম শেষ করে এনেছে। এফএসির (ফরেন অ্যাফেয়ার্স কমিটি) একজন সদস্য জানান, ‘রোহিঙ্গাদের অবস্থা এবং বাংলাদেশের ভূমিকা’ শীর্ষক গোলটেবিলটি ২৮ আগস্ট বুধবার বিকালে রাজধানীর হোটেল লেক শো’রে অনুষ্ঠিত হবে। এতে বাংলাদেশে অভিজ্ঞদের পাশাপাশি ঢাকায় নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কর্মকর্তাদের উপস্থিত থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। গোলটেবিলে দলের পক্ষ থেকে একটি লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করা হবে। এতে বাংলাদেশের ভূমিকা নিয়ে আলোকপাত করা হবে। বিএনপির বিদেশ বিষয়ক কমিটির একটি সূত্রে জানা গেছে, রোহিঙ্গা বিষয়ে কার্যকরভাবে ভূমিকা রাখার কথা ছিল বিএনপির। জাতিসংঘে প্রতিনিধি পাঠানোর বিষয়ে আলোচনাও ছিল দলে। যদিও পরবর্তীতে তা বাতিল হয় দলের শীর্ষ নেতৃত্বের সরাসরি নির্দেশেনায়।
জানা গেছে, দলের চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার অসুস্থতা এবং কারামুক্তির বিলম্ব নিয়েও নেতাকর্মীদের মধ্যে হতাশা ভর করেছে। এমন পরিস্থিতিতে এ ইস্যুতে নেতাকর্মীদের হতাশা দূর করতে কার্যকর এবং সময়োপযোগী উদ্যোগ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটি। চেয়ারপার্সনের মুক্তি ও উন্নত চিকিৎসার জন্য শুধু আইনি প্রক্রিয়ার মধ্যে সীমাবদ্ধ না থেকে আন্তর্জাতিক সহায়তা নেয়া হবে। বিশ্বের প্রভাবশালী দেশ ও আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোকে এ ব্যাপারে কার্যকর উদ্যোগ নিতে শিগগিরই কূটনৈতিক তৎপরতা শুরু করবে। প্রভাবশালী দেশ ভারত, চীন এমনকি সৌদি আরব সফরের নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। চেয়ারপার্সনের মুক্তি ও উন্নত চিকিৎসার জন্য এসব দেশ সরকারের ওপর যাতে চাপ প্রয়োগ করে সে লক্ষ্যেই এ উদ্যোগ। এসব উদ্যোগ ফলপ্রসূ হলে নেতাকর্মীরা উজ্জীবিত হবে।
জানতে চাইলে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বলেন, একটা দল দীর্ঘদিন জোর করে ক্ষমতা আঁকড়ে আছে। নানা নির্যাতন, হামলা-মামলার কারণে নেতাকর্মীদের মধ্যে কিছুটা হতাশার সৃষ্টি হয়েছে। সাধারণ মানুষের মধ্যেও হতাশা রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের মধ্যে সাহস আনতে আমরা উদ্যোগ নিয়েছি। ভোটের মাধ্যমে তৃণমূলে নেতৃত্ব পরিবর্তন করা হবে।
সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন সাংগঠনিক কর্মকা- না থাকায় বেশিরভাগ জেলা-উপজেলায় দলটির সাংগঠনিক কর্মকা- নেই। যেসব ইউনিটে দীর্ঘদিন কমিটি পুনর্গঠন হচ্ছে না সেগুলো দ্রুত পুনর্গঠন করা হবে। কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত সব কমিটিতে যোগ্য ও ত্যাগীদের শীর্ষ নেতৃত্বে আনা হবে। যাতে দল নতুনভাবে ঘুরে দাঁড়াতে পারে। শুধু মূল দল নয়, ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দলসহ অঙ্গসংগঠনগুলোও পুনর্গঠন করা হবে। সামাজিক কর্মকা-েও তাদের প্রত্যক্ষভাবে সম্পৃক্ত করা হবে। ডেঙ্গু সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে নেতাকর্মীদের সম্পৃক্ত করা হবে। এ লক্ষ্যে দলীয়ভাবে পোস্টার ও লিফলেট তৈরি করা হয়েছে। এসব লিফলেট নিয়ে শিগগিরই সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় যাবেন নেতাকর্মীরা।
পাশাপাশি বন্যাকবলিত এলাকায় নেতাকর্মীদের সম্পৃক্ত করা হচ্ছে। কেন্দ্রীয়ভাবে গঠিত একটি টিম বন্যার্তদের ক্ষতির পরিমাণ নির্ণয় ও তাদের সহায়তায় কাজ করছে। স্থানীয় নেতাকর্মীদের এ কাজে সম্পৃক্ত করা হচ্ছে। বরিশাল উত্তর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আকন কুদ্দুসুর রহমান বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট ডাকাতিসহ নানা কারণে তৃণমূলে এক প্রকার হতাশা রয়েছে। এ হতাশা দূর করতে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে সিনিয়র নেতারা কাজ করে যাচ্ছেন। সঠিক নেতৃত্বের মাধ্যমে তৃণমূল পুনর্গঠন এবং সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত নিয়ে এগোতে পারলে দল দ্রুত ঘুরে দাঁড়াবে বলে আশা করি।
নেতাকর্মীদের চাঙ্গা রাখার জন্য নারী-শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন গড়ার লক্ষ্য নিয়ে ‘নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম’ নামে জাতীয় কমিটি গঠন করেছে বিএনপি। ৬১ সদস্যের এই কমিটির আহ্বায়ক হচ্ছেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম সেলিমা রহমান এবং সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরী। আহ্বায়ক কমিটির পাশাপাশি একটি উপদেষ্টা পরিষদও গঠন করা হয়েছে। যার প্রধান হচ্ছেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। সদস্যরা হলেন, অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহ্বুব হোসেন, অধ্যাপক ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, আবদুল আউয়াল মিন্টু, অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন, অ্যাডভোকেট এজে মোহাম্মদ আলী ও অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী।গত শুক্রবার সকালে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলনেন গয়েশ্বর চন্দ্র রায় নবগঠিত সংগঠনের আহ্বায়ক কমিটির নাম ঘোষণা করেন।

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


www.crimebarta.com সম্পাদক ও প্রকাশক মো: আবু শোয়েব এবেল

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০( জাহান প্রির্ন্টস প্রেস),শহীদ নাজমুল সরণী,পাকাপুলের মোড়,সাতক্ষীরা। মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪,০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com