সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৯
লটারীর মাধ্যমে সাতক্ষীরা জেলা পুলিশে রদবদল

ক্রাইমর্বাতা রিপোট:  জেলায় পুলিশে চলছে রদ-বদল। মেধা, যোগ্যতা ও লটারীর মাধ্যমে জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম (বার) পুলিশ সদস্যদের বিভিন্ন ইউনিটে বদলী করছেন বলে জানিয়েছেন। ৮ সেপ্টেম্বর পুলিশ এ তথ্য দিয়েছেন।
এরআগে পুলিশ সুপার সাধারণ জনগণের উদ্দেশ্যে বলেন, সাতক্ষীরায় কর্মরত কোন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ থাকলে তা যথাযথ কর্তৃপক্ষ বরাবর জানাতে পারেন। সুনির্দিষ্ট তথ্য-প্রমাণাদিসহ অভিযোগ দাখিলে বিধি মোতাবেক আমরা যথাসম্ভব দ্রুত ব্যবস্থা নিয়ে থাকি। বর্তমানে বে-আইনি যানবাহন, শহরে অপ্রয়োজনীয় মাইকিং, মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলমান রয়েছে। উল্লিখিত ক্ষেত্রে আইন প্রয়োগে কোন ব্যতিক্রম পরিলক্ষিত হলে সিনিয়র অফিসারদের জানালে আমরা ব্যবস্থা নিব। আর যদি কারো উদ্দেশ্য থাকে, কোন পুলিশ সদস্যকে কিংবা বাহিনী হেস্তনেস্ত করাই তবে সেটিও নজরাধীন। পুলিশ সুপার সুন্দর সাতক্ষীরা গড়ে তুলতে সকলকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানান।
এদিকে গত দুদিনে জেলার বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্যকে বদলী করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্র জানায়। সূত্রমতে
গত মঙ্গলবার সাতক্ষীরা গোয়েন্দা পুলিশের দুই উপ-পরিদর্শককে শাস্তিমূলক বদলী করা হয়।
বদলীকৃত পুলিশ কর্মকর্তারা হলেন সাতক্ষীরা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক রিয়াদুল ইসলাম ও উপ-পরিদর্শক মিজানুর রহমান। তাদেরকে শ্যামনগর থানায় বদলী করা হয়।
এদিকে অপর এক সূত্রে জানা যায়, পাটকেলঘাটা থানার তিন পুলিশ সদস্যকে পুলিশ লাইনে ক্লোজড করা হয়েছে। সূত্র জানায়, পাটকেলঘাটা থানায় কর্মরত থাকা অবস্থায় তিন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার, নিরীহ মানুষেদের হয়রাণী মাদক বিক্রেতা ও মাদক সেবীদের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে তোলা ও ঘুষ দুর্নীতির অভিযোগে ওঠে। এরপর বিষয়টি পুলিশ সুপারসহ উর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে পৌছালে এসআই ফরিদ, এএসআই সুজিত ও ড্রাইভার বেলালকে পুলিশ লাইনে প্রত্যাহার করা হয়।
সূত্রমতে, জেলার আইন-শৃঙ্খলা, সড়কে যানজট নিরসন, বেপরোয়া যান চলাচল, ইভটিজিং, নারী ও শিশু নির্যাতনসহ বিভিন্ন প্রকার অপরাধ দমনে পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমানের নির্দেশনায় জেলার ৮ থানার কর্মকর্তারা কাজ করছেন। ডেঙ্গু দমনেও পুলিশ মাঠে রয়েছে। মাদকের বিরুদ্ধে পুলিশ সুপার ইতোমধ্যে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন। কোনো পুলিশ সদস্যও যদি মাদকে জড়িয়ে পড়ে তাহলে তারও রেহাই হবে না বলে সূত্র জানায়।
একটি সূত্র জানায়, জেলা গোয়েন্দা পুলিশের সকল সদস্যকে বদলী করা হয়েছে। তবে পুলিশের কোন দায়িত্বশীল সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করতে পারিনি।
জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার পরিদর্শক মিজানুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘শুনেছি অনেকে বদলী হয়েছেন। তবে কতজন বদলী হয়েছেন জানি না।’

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


www.crimebarta.com সম্পাদক ও প্রকাশক মো: আবু শোয়েব এবেল

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০( জাহান প্রির্ন্টস প্রেস),শহীদ নাজমুল সরণী,পাকাপুলের মোড়,সাতক্ষীরা। মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪,০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com