সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৯
দুই জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিন মাদক ব্যবসায়ী নিহত

কক্সবাজার ও ময়মনসিংহে বিজিবি এবং ডিবি পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিন মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। গতকাল গভীর রাতে পৃথক এই ঘটনা ঘটে। এসময় উভয় ঘটনাস্থল থেকে বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্য ও অস্ত্র উদ্ধার করা করা হয়। অভিযান চলাকালে বিজিবির তিন ও পুলিশের এক সদস্য আহত হয়েছেন।
টেকনাফ প্রতিনিধি জানান, বৃহস্পতিবার মধ্যরাত দেড়টার দিকে টেকনাফের হ্নীলা নাফনদী জালিয়াপাড়া সীমান্ত এলাকায় বিজিবি টহল দল ৪-৫ জন ব্যাক্তিকে মিয়ানমার সীমান্ত অতিক্রম করে একটি হস্ত চালিত নৌকা নিয়ে উপকুলে প্রবেশ করতে দেখে নৌকাটি থামানোর সংকেত দেন। এসময় পাচারকারীরা বিজিবির সংকেত না মেনে পালানোর চেষ্টা করলে। বিজিবি জওয়ানরা তাদের ধাওয়া করে। একপর্যায়ে মাদক পাচারকারীরা অতর্কিত বিজিবি সদস্যদের লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণ শুরু করলে বিজিবির তিন সদস্য গুরুতর আহত হয়। এরপর আত্মরক্ষার্থে বিজিবিও পাল্টা গুলি চালায়। কিছুক্ষণ পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে ঘটনাস্থল তল্লাশি চালিয়ে ২ ব্যক্তিকে গুলিবিদ্ধ হয়ে পড়ে থাকতে দেখে বিজিবি সদস্যরা তাদের উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করলে সেখানকার চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করে। বন্দুকযুদ্ধে নিহতরা হলেন, মিয়ানমারের মংডুর বুড়াসিকদার পাড়া এলাকার দীল মোহাম্মদের ছেলে দুস্ত মোহাম্মদ (১৮) ও একই গ্রামের মৃত মোস্তাক আহমদের ছেলে দীল মোহাম্মদ (১৭)। এছাড়া ঘটনাস্থল হতে ২ কোটি ১০ লক্ষ টাকা মুল্যমানের ৭০ হাজার ইয়াবা, দেশীয় তৈরী ১টি লম্বা বন্দুক,২ রাউন্ড তাজা কার্তুজ, ১টি ধারালো কিরিচ উদ্ধার করতে সক্ষম হয় বিজিবি।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে টেকনাফ ২ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল মোঃ ফয়সাল হাসান খান জানান, টেকনাফ সীমান্ত উপকুল ব্যবহার করে মাদক পাচারে জড়িত অপরাধীরা ফের সক্রিয় হয়ে তাদের অপকর্ম অব্যাহত রাখার চেষ্টা করছে। তবে সেই অপচেষ্টা প্রতিরোধ করার জন্য সীমান্ত প্রহরী বিজিবি জওয়ানরা সদা প্রস্তুত রয়েছে। পাশাপাশি যে সমস্ত অপরাধীরা এখনো মাদক পাচারে জড়িত রয়েছে তাদেরকে আইনের আওয়তাই এনে কঠোর হস্তে দমন করার জন্য বিজিবি জওয়ানদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।
এদিকে ময়নসিংহ থেকে স্টাফ রিপোর্টার জানান, ময়মনসিংহে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আব্দুর করিম (৪৫) নামে এক মাদকবিক্রেতা নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সোয়া ১টার দিকে জেলার তারাকান্দা উপজেলার মোকামিয়াকান্দা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি পাইপগান, এক রাউন্ড গুলি ও ২০০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করে।
এ ঘটনায় আনোয়ার হোসেন নামে এক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। নিহত মাদকবিক্রেতা করিমের বিরুদ্ধে থানায় ১৩টি মাদকের মামলাসহ ১৫টির বেশি মামলা আছে।
জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ কামাল আকন্দ জানান, আন্তঃজেলা সংঘবদ্ধ মাদকবিক্রেতারা ওই এলাকায় অবস্থান করছে, এমন গোপন খবর পেয়ে সেখানে অভিযান চালানো হয়। সেখানে পৌঁছানো পরই পুলিশকে লক্ষ্য করে তারা গুলি ছুড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়ে। একপর্যায়ে সংঘবদ্ধ মাদকবিক্রেতারা গুলি ছুড়তে ছুড়তে পালিয়ে যায়। এ সময় তাদের ছোড়াগুলিতে মাদকবিক্রেতা আব্দুর করিম আহত হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


www.crimebarta.com সম্পাদক ও প্রকাশক মো: আবু শোয়েব এবেল

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০( জাহান প্রির্ন্টস প্রেস),শহীদ নাজমুল সরণী,পাকাপুলের মোড়,সাতক্ষীরা। মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪,০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com