নভেম্বর ২, ২০১৯
জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা আজ:পরীক্ষার্থী সাড়ে ২৬ লাখ : সাতক্ষীরায় ২৬টি কেন্দ্রের অধীনে পরীর্ক্ষাথী ২৫ হাজার

আবু সাইদ বিশ্বাস: ক্রাইমর্বাতা রিপোর্ট: সাতক্ষীরা:   জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা আজ শুরু হচ্ছে। সকাল ১০টায় বিদেশের ৯টিসহ দেশের ২ হাজার ৯০৩টি কেন্দ্রে একযোগে এ পরীক্ষা শুরু হবে। এবার ২৬ লাখ ৬১ হাজার ৬৮২ শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিচ্ছে। এর মধ্যে ১২ লাখ ২১ হাজার ৬৯৫ জন ছাত্র ও ১৪ লাখ ৩৯ হাজার ৯৮৭ জন ছাত্রী।

প্রথমদিন জেএসসিতে বাংলা এবং জেডিসিতে কুরআন মাজিদ ও তাজবিদ বিষয়ের পরীক্ষা নেয়া হবে।

৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড এবং মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীন নেয়া হচ্ছে এ পরীক্ষা। এর মধ্যে প্রথমবারের মতো ময়মনসিংহ শিক্ষা বোর্ড পরীক্ষা নিচ্ছে। এ বছর মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে জেএসসিতে ২২ লাখ ৬০ হাজার ৭১৬ জন ও জেডিসিতে ৪ লাখ ৯৬৬ জন শিক্ষার্থী রয়েছে।

এর মধ্যে নিয়মিত ২৩ লাখ ৯৭ হাজার ৫৬০ জন। অবশিষ্টরা অনিয়মিত। অনিয়মিতদের ২ লাখ ৩৩ হাজার ৩১০ জন জেএসসিতে এবং ৩০ হাজার ২৯১ জন জেডিসিতে। অনিয়মিতরা কেউ এক, দুই ও তিন বিষয়ে অকৃতকার্য। ফেল করা প্রার্থীও আছে। আছে মানোন্নয়ন পরীক্ষার্থী। এ ছাড়া বিদেশি মোট ৯টি কেন্দ্রে ৪৫৪ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেবে।

পরীক্ষায় ৭টি বিষয়ে ৬৫০ নম্বরের পরীক্ষা দিতে হবে জেএসসি শিক্ষার্থীদের। আর জেডিসিতে হবে ১০ বিষয়ে পরীক্ষা। ইংরেজি ছাড়া সব বিষয়ে সৃজনশীল প্রশ্নে পরীক্ষা হবে। শারীরিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য, কর্ম ও জীবনমুখী শিক্ষা এবং চারু ও কারুকলা, কৃষি শিক্ষা, গার্হস্থ্য বিজ্ঞান, আরবি, সংস্কৃত, পালি বিষয়ে ধারাবাহিক মূল্যায়নের অধীন আনা হয়েছে।

পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে শিক্ষার্থীদের। যদি কেউ এ সময়ের পরে আসে তবে তার কারণ ও যাবতীয় তথ্য লিখে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেয়া হবে। সেই তথ্য পরীক্ষা শেষে সংশ্লিষ্ট বোর্ডে পাঠানো হবে। পরীক্ষা শেষ হবে ১৩ নভেম্বর।

সারা দেশের ন্যায় সাতক্ষীরায়ও মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অধীনে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষা এবং বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা ২০১৯ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল বলেন, সাতক্ষীরায় জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা সুন্দর ও নকল মুক্ত করতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। এবারের পরীক্ষায় সাতক্ষীরা জেলায় মোট ২৬টি কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২৫ হাজার ৬শত ৮২ জন এবং ১৩টি কেন্দ্রে জেডিসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৮ হাজার ২শত ৯৫ জন। সর্বমোট ৩৩ হাজার ৯ শত ৩৭ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করবে। সাতক্ষীরা সদর উপজেলায় সাতক্ষীরা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ এক হাজার ২শ ২৪ জন। সাতক্ষীরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৮ শ ৫৪ জন। নবারুন বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার ৪ শ ৮৮ জন। সাতক্ষীরা পি এন বহুমূখী মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার ১৮ জন। জেডিসি পরীক্ষায় সাতক্ষীরা আলিয়া কামিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে জেডিসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৬শ ২৯ জন। হযরত আবু বকর সিদ্দিক (রা:) ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে জেডিসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৩ শত ১২ জন। আগরদাড়ি আমিনিয়া কামিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে জেডিসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার। কলারোয়া উপজেলায় জেএসসি পরীক্ষায় কলারোয়া জি,কে,এম,কে পাইলট সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় কন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার ৫ শত ৮২ জন। সোনাবাড়িয়া সম্মিলিত মাধ্যমিক বিদ্যালয় কন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার ১শত ৩ জন। খোর্দ্দ মাধ্যমিক বিদ্যালয় কন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৫ শত ৫৩ জন। কলারোয়া গার্লস পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় কন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার ১ শত ১৪ জন। জেডিসি পরীক্ষায় কলারোয়া আলিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্রে জেডিসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার ১৮ জন। তালা উপজেলায় জেএসসি পরীক্ষায় তালা সরকারি বি দে মাধ্যমিক বিদ্যালয় কন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার ৬৪ জন। কুমিরা পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় কন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৬ শত ৬৫ জন। খলীষখালি মাগুরা এসসি কলেজিয়েট ইনস্টিটিউট কন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৬ শত ৪৬ জন। আমিরুন্নেছা মাধ্যমিক বিদ্যালয় কন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার ২ জন। শহীদ আলী আম্মদ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৭ শত ৪৩ জন। জেডিসি পরীক্ষায় তালা আলিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্রে জেডিসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৪ শত ৫৭ জন। পাটকেলঘাটা আল আমিন ফাজিল মাদরাসা কেন্দ্রে জেডিসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৪ শত ২৭ জন। আশাশুনি উপজেলায় জেএসসি পরীক্ষায় আশাশুনি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৭ শত ৫৬ জন। দরগাহপুর এস কে আর এইচ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৬ শত ৮৪ জন। বুধহাটা বি বি এম মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার ১ শত ৩৪ জন। বড়দল আফতাব উদ্দীন কলেজিয়েট স্কুল কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৫ শত ২০ জন। বিছট নিউ মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৪ শত ৯৩ জন। জেডিসি পরীক্ষায় আশাশুনি আলিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্রে জেডিসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৯ শত ২৩ জন। গুণাকরকাটি আজিজিয়া খাইরিয়া কামিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে জেডিসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৩ শত ৫৫ জন। কালিগঞ্জ উপজেলায় জেএসসি পরীক্ষায় কালিগঞ্জ সরকারি পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২ হাজার ১ শত ৯৭ জন। নলতা মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৯ শত ১২ জন। চাম্পাফুল আ. প্র. চ. মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৮ শত ১৯। জেডিসি পরীক্ষায় কালিগঞ্জ নাছরুল উলুম দাখিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে জেডিসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৬ শত ৪১ জন।
দেবহাটা উপজেলায় জেএসসি পরীক্ষায় দেবহাটা সরকারি বি বি এম পি মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৭ শত ৮০ জন। পারুলিয়া এস এস মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৯ শত ২২ জন। জেডিসি পরীক্ষায় সখিপুর আলিম মাদ্রাসা কেন্দ্রে জেডিসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৩ শত ৭১ জন। শ্যামনগর উপজেলায় জেএসসি পরীক্ষায় নখিপুর এইচ সি পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার ৩ শত ১৫ জন। নওয়াবেকী মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার ১ শত ৫৬ জন। নকিপুর পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৯ শত ৮ জন। জেডিসি পরীক্ষায় শ্যামনগর কেন্দ্রিয় ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে জেডিসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার ২৪ জন। নওয়াবেকী বিড়ালক্ষী কাদেরিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা কেন্দ্রে জেডিসি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৬ শত ৯২ জন। পরীক্ষা চলাকালীন কেন্দ্রের ২০০ গজের মধ্যে জনসাধারনের প্রবেশ সম্পূর্ণুরুপে নিষিদ্ধ করার জন্য ফৌ: কা: বিধির ১৪৪ ধারা জারী ও আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োজিত থাকবে। পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট পুর্বে পরীক্ষার্থীদেরকে অবশ্যই পরীক্ষা হলে প্রবেশ করতে হবে। অনিবার্য কারণে পরীক্ষার্থীকে পরে প্রবেশ করতে দিলে তার নাম, রোল নম্বর, প্রবেশের সময়, বিলম্ব হওয়ার কারণ রেজিষ্টারে লিপিবদ্ধ করতে হবে এবং ঐদিন শিক্ষা বোর্ডে প্রতিবেদন দিতে হবে। একই পরীক্ষার্থী একাধিকবার বিলম্ব করলে তদন্ত করা হবে। পরীক্ষা কেন্দ্রের গেটে অবশ্যই পরীক্ষার্থীদের দেহতল্লাশী করে পরীক্ষার্থীকে হলে প্রবেশ করানো হবে। ছাত্রীদের একটি রুমে নিয়ে শিক্ষিকাদের দিয়ে দেহ তল্লাশী করানো হবে। যে সকল শিক্ষক কর্মচারীর সন্তান পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করবে সে সমস্ত শিক্ষক কর্মচারী ইনভিডিলেটর হিসেবে সেই কেন্দ্রে বা ভেন্যুতে দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না। পরীক্ষা কেন্দ্রের ১ কিলোমিটারের মধ্যে সকল ফটোস্ট্যাট মেশিন পরীক্ষা চলকালীন বন্ধ রাখতে হবে এবং কেন্দ্রে সচিবগণ ব্যতীত কেউ মোবাইল ব্যবহার ফোন ব্যবহার করতে পারবে না। পরীক্ষার্থীদের তাৎক্ষনিক প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদানের লক্ষ্যে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে কেন্দ্র সমূহে ডাক্তার নিয়োজিত থাকবে। পরীক্ষা কেন্দ্র সমূহে আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে পুলিশ ফোর্স নিয়োজিত থাকবে। এবিষয় সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল বলেন, সাতক্ষীরায় জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা সুন্দর ও নকল মুক্ত করতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। পরীক্ষার পরিবশে সুষ্ঠু রাখতে কেন্দ্রে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োজিত থাকবে।

কথিত প্রশ্নের পেছনে না ছুটে সন্তানকে লেখাপড়ায় নিবিষ্ট রাখার আহ্বান জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী মঙ্গলবার অভিভাবকদের উদ্দেশে বলেন, প্রশ্নফাঁস হয় না। গুজব ছড়িয়ে প্রতারণার মাধ্যমে অসাধুরা বাবা-মা ও পরীক্ষার্থীর কাছ থেকে টাকা নেয়ার পরিস্থিতি তৈরি করে। তাই অভিভাবকদের বলব, সন্তানকে অনৈতিকতার পথে নেবেন না। তাদেরকে সুসন্তান হিসেবে গড়ে তুলুন। সুসন্তান দেশ ও আপনার ভবিষ্যৎ।

 

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


www.crimebarta.com সম্পাদক ও প্রকাশক মো: আবু শোয়েব এবেল

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০( জাহান প্রির্ন্টস প্রেস),শহীদ নাজমুল সরণী,পাকাপুলের মোড়,সাতক্ষীরা। মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪,০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com