নভেম্বর ৮, ২০১৯
নতুন আইন: বিআরটিএ অফিসে উপচেপড়া ভিড়

ক্রাইমর্বাতা রিপোর্ট:   সাতক্ষীরা : সাতক্ষীরা বিআরটিএ অফিসে নতুন কাগজপত্র পাওয়ার আশায় বাড়ছে ভিড়। জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে আসছেন মানুষ। কাকডাকা ভোর থেকে বিকাল পর্যন্ত উপচেপড়া ভিড় এ অফিসে। নতুন সড়ক পরিবহন আইনে জরিমানা বৃদ্ধি হওয়ায় বৈধ কাগজপত্র পেতে সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) সাতক্ষীরা অফিসে উপচেপড়া ভিড় দেখা গেছে।
বৃহস্পতিবার সকালে সরেজমিনে সাতক্ষীরা বিআরটিএ অফিসে গিয়ে দেখা যায়, আগের তুলনায় ড্রাইভিং লাইসেন্স ও মটরসাইকেলের কাগজপত্র করতে দীর্ঘ লাইন পড়েছে। সাতক্ষীরা বিআরটিএ অফিস সূত্রে জানা গেছে, গত সপ্তাহের তুলনায় চলতি ৩/৪ দিন ধরে কাজের চাপ অনেক বেশি। তারা বলছেন, নতুন সড়ক পরিবহন আইনে জরিমানা বেড়ে যাওয়ায় লোকজনের চাপ বেশি হচ্ছে। কালিগঞ্জ থেকে এসেছেন মো. আনারুল ইসলাম ও মনিরুল ইমলাম। তারা বলেন, মাস ছয়েক আগে মোটরসাইকেল নিয়েছি। কিন্তু অলসতার কারণে এতোদিন লাইসেন্স হরা হয়নি। আশাশুনি থেকে তানভীর রেজা এসেছিলেন ড্রাইভিং লাইসেন্সের টাকা জমা দিতে। তিনি বলেন, মটরসাইকেল চালালেও এতদিন ড্রাইভিং লাইসেন্স ছিলো না। তাই ড্রাইভিং লাইসেন্স করতে এসেছি। আগে জরিমানা ছিল মাত্র ৫০০ টাকা কিন্তু নতুন আইনে জরিমানা ২৫ হাজার টাকা করা হয়েছে। জরিমানার হাত থেকে বাঁচতে লাইসেন্স করা এখন জরুরি।
শুধু লাইসেন্স পরীক্ষার্থী নয় গাড়ির কাগজপত্র হালনাগাদ করতেও ভিড় করছেন চালকরা। এক সপ্তাহ পর থেকে কার্যকর হচ্ছে বহুল আলোচিত সড়ক পরিবহন আইন। এই আইনে সড়কে নিয়ম ভঙ্গে জরিমানা বেড়েছে হাজার গুণ পর্যন্ত। ড্রাইভিং লাইসেন্স কিংবা ফিটনেস সনদ না থাকলে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানার বিধান রয়েছে নতুন আইনে। হতে পারে ছয় মাস পর্যন্ত কারাদন্ড।
আগে এ অপরাধের জরিমানা ছিল ৫০০ টাকা। গাড়ির রেজিস্ট্রেশন না থাকলে জরিমানা দিতে হবে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত। গাড়ির ট্যাক্স টোকেন হালনাগাদ না থাকলে জরিমানা ১০ হাজার টাকা।

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


www.crimebarta.com সম্পাদক ও প্রকাশক মো: আবু শোয়েব এবেল

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০( জাহান প্রির্ন্টস প্রেস),শহীদ নাজমুল সরণী,পাকাপুলের মোড়,সাতক্ষীরা। মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪,০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com