কাজ কম বিতর্ক বেশি

ক্রাইমবার্তা বিনোদন ডেস্ক:বছরটি নায়িকাদের ছিল। তবে নায়িকারা কাজের চেয়ে বেশি আলোচনায় ছিলেন তাঁদের ব্যক্তিজীবন, বিয়ে, প্রেম নিয়ে। কাজ ও ব্যক্তিজীবন দুটো মিলিয়ে এ বছরে যে অভিনেত্রীরা থেকেছেন খবরের শিরোনামে, আজকের আয়োজন তাঁদের নিয়ে।

পরীমনি১. পরীমনি
২০১৬ সালে তিনটি ছবি মুক্তি পেয়েছে পরীমনির। তবে তাঁকে নিয়ে যত আলোচনা, তাঁর ছবিগুলো নিয়ে ঠিক ততটা আলোচনা হয়নি। বাংলাদেশ-ভারতের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত রক্ত ছবিতে অ্যাকশন চরিত্রে অভিনয় করার জন্য ছবির শুটিংয়ের আগে থেকেই আলোচনায় ছিলেন এই অভিনেত্রী। তা ছাড়া বছরের শুরুর দিকে মনপুরা-খ্যাত নির্মাতা গিয়াসউদ্দীন সেলিমের স্বপ্নজাল ছবির নায়িকা হিসেবে কাজ শুরু করেও আলোচনায় আসেন তিনি। এর পাশাপাশি ব্যক্তিজীবন নিয়েও আলোচনা-সমালোচনার কমতি ছিল না পরীর। বছরের শুরুতেই নিজের বাগদানের ঘোষণা দেওয়া, এরপর ফেসবুকে এক রহস্যমানবের সঙ্গে ছবি থেকে শুরু করে এফডিসির সহকারী শিল্পীদের নিয়ে ঈদ উদ্যাপন, সমালোচনা–আলোচনা দুটো দিয়েই এই অভিনেত্রী আমাদের ‘বছরের আলোচিত’ তালিকায় এগিয়ে আছেন।

মাহিয়া মাহি২. মাহিয়া মাহি
বছরের শুরুর দিকে হুমায়ূন আহমেদের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত কৃষ্ণপক্ষ ছবিতে অভিনয় করে আলোচিত ও সমালোচিত হন মাহিয়া মাহি। গত এপ্রিলে মুক্তি পায় তাঁর আরেকটি ছবি অনেক দামে কেনা। তবে তাঁর অভিনয় নিয়ে যতটা না আলোচনা হয়েছে, তার চেয়ে বেশি আলোচনা হয়েছে বিয়ে নিয়ে। এ বছরের মে মাসে এই অভিনেত্রী হঠাৎ করেই বিয়ের পিঁড়িতে বসেন। তা ছিল বিনোদনজগতে বছরের আলোচিত ঘটনার একটি। কারণ শুধু বিয়েই নয়, সে সময়টায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাঁকে নিয়ে কিছু গুজবও ছড়ায়, যার জের ধরে মাহিকে থানা-পুলিশ পর্যন্ত করতে হয়।

তিশা৩. তিশা
অস্তিত্ব ও রানা পাগলা: দ্য মেন্টাল-এর মতো সম্পূর্ণ বাণিজ্যিক ছবিতে অভিনয় করে অভিনেত্রী তিশা আলোচনায় আসেন। রানা পাগলা: দ্য মেন্টাল ছবিতে শাকিব খানের সঙ্গে একটি গানে বেশ অন্তরঙ্গভাবে দেখা গিয়েছিল তিশাকে; যা নিয়ে একটা সময় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেক আলোচনা হয়। বছরের মাঝামাঝি সময়ে ডুব ছবিতে বলিউডের ইরফান খানের বিপরীতে অভিনয় করেও তিশা ছিলেন আলোচনায়। এমনকি এ বছর প্রথম ফেসবুকে নাম লিখিয়েও এই অভিনেত্রী ভক্তদের মধ্যে আলোড়ন তোলেন।

জয়া আহসান৪. জয়া আহসান
এ বছর মুক্তি পায় জয়া আহসান অভিনীত ছবি পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনি ২। তবে জয়া ঢালিউডের চেয়ে বেশি আলোচনায় ছিলেন তাঁর কলকাতার ছবিগুলো নিয়ে। জয়া অভিনীত শবর গোয়েন্দা সিরিজের ঈগলের চোখ ছিল এ বছরে তাঁর একটি আলোচিত কাজ; যা কলকাতায় একই সঙ্গে যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত শাকিবের ছবি শিকারির সঙ্গে মুক্তি পায়। ঈগলের চোখ ছবিতে অভিনয় করে প্রশংসিত হন জয়া। তা ছাড়া তাঁর স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবি ভালোবাসার শহরও ছিল আলোচনায়। তবে আলোচনার পাশাপাশি সমালোচনাকেও এ বছর সামাল দিয়েছেন জয়া। ভারতের একটি পত্রিকায় ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করে তিনি সমালোচিত হয়েছেন এ বছর।

নুসরাত ফারিয়া৫. নুসরাত ফারিয়া

এ বছরের শুরুর দিকে নুসরাত ফারিয়া অভিনীত বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনার ছবি হিরো ৪২০ মুক্তি পায়। কিন্তু ছবিটি দুই দেশের কোথাও সাড়া ফেলেনি। তবে ঈদে মুক্তি পাওয়া ছবি বাদশা দিয়ে আবারও আলোচনায় ফিরে আসেন ফারিয়া। ছবিটি বাংলাদেশ ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গে সাফল্য পায়। এই ছবিতে কলকাতার জিতের বিপরীতে অভিনয় করেছেন তিনি।

মিম৬. মিম

বছরের শুরুতে ও শেষে দুটি ছবি মুক্তি পেয়েছে বিদ্যা সিনহা মিমের। তবে গত বছর চলচ্চিত্র দুনিয়ায় এই অভিনেত্রী যতটা আলোড়ন তুলেছেন, এ বছর তেমন অবস্থান ছিল না। সিনেমার চেয়ে বেশি বিভিন্ন পণ্যের বিজ্ঞাপনে ও পণ্য–প্রচারদূত হিসেবে তাঁকে পাওয়া গেছে। তাঁকে ঘিরে তেমন বিতর্ক ছিল না। মিম যতটুকু আলোচনায় ছিলেন, তার সবটুকুই ছিল তাঁর অভিনয়কে ঘিরে।

Facebook Comments
Please follow and like us: