আরাফাত সানি কারাগারে

ক্রাইমবার্তা রিপোট:তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনের মামলায় গ্রেপ্তার জাতীয় দলের ক্রিকেটার আরাফাত সানিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার ঢাকার মহানগর হাকিম জাকির হোসেন টিপু এ আদেশ দেন।

রিমান্ডে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন আরাফাত সানি
এর আগে দুপুরে আরাফাত সানিকে আদালতে হাজির করে মোহাম্মদপুর থানার পুলিশ। আদালত সূত্র বলছে, সানি বর্তমানে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতের হাজতখানায় রয়েছেন। বিকেলে তাঁকে কারাগারে পাঠানো হবে।
সানির আইনজীবী মুরাদুজ্জামান প্রথম আলোকে বলেন, সানির জামিন চেয়ে আদালতে আবেদন করেন। আদালত আবেদনটি নথিভুক্ত রেখেছেন। পরে জামিন শুনানি হবে। সানির চিকিৎসার ব্যবস্থা চেয়ে আদালতে আবেদন করেন। আদালত কারাবিধি মোতাবেক সানির সুচিকিৎসার ব্যবস্থা নিতে বলেছেন।গত রোববার আমিনবাজারের বাসা থেকে সানিকে গ্রেপ্তার করে মোহাম্মদপুর থানার পুলিশ। সেদিন তাঁকে আদালতে হাজির করে পাঁচ দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে পুলিশ। তাঁকে এক দিন রিমান্ডে নেওয়ার অনুমতি দেন আদালত। এর আগে ফেসবুক মেসেঞ্জারে আপত্তিকর ছবি পাঠানোর অভিযোগ এনে সানির বিরুদ্ধে মোহাম্মদপুর থানায় মামলা করেন এক নারী।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, আরাফাত সানির সঙ্গে ওই নারীর ২০১৪ সালের ৪ ডিসেম্বর বিয়ে হয়। গত বছরের ১২ জুন আরাফাত দুজনের একান্ত ব্যক্তিগত ছবি ও নারীর একক আপত্তিকর ছবি মেসেঞ্জারে পাঠান। ছবি পাঠিয়ে আরাফাত সানি ওই নারীকে হুমকি দেন। পরে আবার ২৫ নভেম্বর আরাফাত ওই নারীকে আপত্তিকর ছবি পাঠিয়ে ভয়াবহ পরিস্থিতির জন্য অপেক্ষা করতে বলে হুমকি দেন।

গতকাল সোমবার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে সানির বিরুদ্ধে যৌতুকের আরেকটি মামলা করেন ওই নারী । যৌতুক মামলায় সানির বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে, সানির সঙ্গে বাদীর বিয়ে হয় ২০১৪ সালের ৪ ডিসেম্বর। বিয়ের পর তাঁরা বাসা ভাড়া নিয়ে একসঙ্গে বসবাস করেন। তবে সানির পরিবার বিয়ে মেনে নিতে চায়নি। পরে সানি বাদীর কাছে ২০ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। বাদীকে বলেন, টাকা দিলে তাঁর মা বাদীকে ঘরে তুলে নেবেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে সানির বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন।

 

 

Facebook Comments
Please follow and like us: