আইপিএলের ওপর খেপেছেন মিয়াঁদাদ

ক্রাইমবার্তা স্পোর্টস ডেস্ক:আফ্রিদিরা আইপিএলের প্রথম আসরে খেলেছেন। ফাইল ছবিআইপিএলের প্রথম আসরেও ছিলেন পাকিস্তানি তারকারা। ডেকান চার্জার্সে ছিলেন শহীদ আফ্রিদি। দিল্লি ডেয়ারডেভিলসে শোয়েব মালিক, মোহাম্মদ আসিফ। রাজস্থান রয়্যালসে ছিলেন সোহেল তানভীর। পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের সংখ্যাটাও কম ছিল না। কিন্তু দুই দেশের সম্পর্কের টানাপোড়েন তীব্র হতে হতে গত কয়েক আসর ধরেই আইপিএলে ব্রাত্য পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা।আফ্রিদিরা আইপিএলের প্রথম আসরে খেলেছেন। ফাইল ছবি

এবারের নিলামেও যেমন ছিলেন না কেউই। টি-টোয়েন্টি লিগগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি টাকা আইপিএলে। এখানকার নিলামের অঙ্ক শুনে বিশ্বাস হতে চায় না বেন স্টোকসদেরও। এক সময় কেভিন পিটারসেনও যেমন মিলিয়ন ডলারে বিকিয়েছেন। এই আসরে থাকতে না পারা নিয়ে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের মনে খেদ থাকতেও পারে। ভাবতে পারেন, ‘আমরা স্টোকসদের চেয়ে কম কীসে!’
এ নিয়ে আইপিএলের ওপর খেপেছেন জাভেদ মিয়াঁদাদ। আইপিএলকে মোটেও পাত্তা দিচ্ছেন না এমন একটা ভাব করলেও রাগটা তাঁর স্পষ্ট। বড়ে মিয়াঁ বলেছেন, ‘একটা সময় ছিল যখন এর অংশ হতে না পারায় আমাদের খারাপ লাগত। কিন্তু এখন আমাদের নিজেদেরই এমন একটা লিগ (পিএসএল) আছে। এটাও অনেক সফল।’
এবারের আইপিএলের নিলামে রশীদ খান বেশ বড় অঙ্কের টাকায় বিক্রি হয়েছেন। মোহাম্মদ নবীও তুলনামূলক বেশ ভালো দাম পেয়েছেন। এই দুই আফগান ক্রিকেটারও জায়গা করে নিলেন, তাতে কি পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের আফসোস বাড়লই? মিয়াঁদাদ অবশ্য মনে করেন, ‘আফগান ক্রিকেটার হোক বা অন্য কোনো দেশের, আইপিএল নিয়ে আমাদের কোনো মাথা ব্যথা নেই। অবশ্য কোনো খেলোয়াড় যদি ভালো হয়, যেকোনো লিগ থেকে তার ডাক পড়বেই।’
গত বছর জহির আব্বাস জানিয়েছিলেন, পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের যেন আইপিএলে নেওয়া হয় এ ব্যাপারে তিনি বিসিসিআইয়ের সঙ্গে কথা বলবেন। আফ্রিদিও এই লিগে খেলার ব্যাপারে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের উৎসাহের কথা জানিয়েছিলেন। সূত্র: পিটিআই।

 

Facebook Comments
Please follow and like us: