রবিবার , ৫ জুলাই ২০২০

গাজীপু‌রে তারেক রহমানসহ ৯ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি ॥

ক্রাইমবার্তা রিপোট:গাজীপুর সংবাদদাতাঃ  সরকার বিরোধী আন্দোলন চলাকালে গাড়ীতে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ ও ভাংচুর করার অভিযোগে ২০১৫ সালে গাজীপুরে দায়ের করা বিশেষ ক্ষমতা আইনের নাশকতার মামলায় বিএনপি’র সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ ৯ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেছে আদালত। গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মো. ফজলে এলাহী ভ’ইয়া এ গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেন।3

গাজীপুর আদালতের পরিদর্শক মো. রবিউল ইসলাম মঙ্গলবার মামলার উদ্ধৃতি দিয়ে জানান, ২০১৪ সালের জানুয়ারি মাসে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মাধ্যমে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ও শরিক দল টানা ২য় বারের মতো সরকার গঠন করার পূর্বে ও পরে দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে অর্থ যোগান ও উস্কানি দিয়ে বিএনপি তথা ২০ দলীয় জোটের ২য় নেতা বিএনপি’র সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান লন্ডনে অবস্থান করে তার ব্যক্তিগত সহকারি লুৎফর রহমান বাদল এবং গাজীপুর সিটি মেয়র অধ্যাপক এমএ মান্নান পুত্র বিএনপি নেতা মঞ্জুরুল আহসান রনিদের নিয়ে তাদের ফ্ল্যাট-৩ (Audley Court, 32-34, Hilln Street, London, WIJ 5NP. UK) এর বাসা থেকে বিভিন্ন তারিখ ও সময়ে ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে বাংলাদেশের প্রধান শিল্পাঞ্চল ও বিশেষ জেলা গাজীপুর অঞ্চলে উত্তর-পশ্চিম অঞ্চলের যাতায়তের প্রধান মহাসড়কে জনমনে আতংক সৃষ্টি করে নাশকতা, গাড়ি ভাংচুর, গাড়িতে পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ, মানুষ হত্যার উদ্দেশ্যে রাস্তা অবরোধ করে এবং উক্ত বাড়ি হতে সরকার পতনের আলোচনা করে। তারেক জিয়া বিদেশে বসে সারা দেশে এক সঙ্গে নাশকতার জন্য নেতাকর্মীদের নির্দেশ দেন এর জের ধরে ২০১৫ সালের ২১ জানুয়ারি ২০ দলীয় জোটের হরতাল চলাকালে গাজীপুরের মনিপুর খাসপাড়া এলাকার তারেক জিয়া মোড় এলাকায় বিএনপির নেতাকর্মীরা রাস্তা অবরোধ সৃষ্টি করে। এসময় তারা একটি বাসে কেরোসিন ও পেট্রোল ঢেলে অগ্নিসংযোগ করে। এতে বাসটি পুড়ে গিয়ে ক্ষতি সাধিত হয়। এ ঘটনায় জয়দেবপুর থানার এসআই দিলীপ চন্দ্র সরকার বাদি হয়ে ১৮ জনের নামে ও অজ্ঞাতনামা আরো ৪০-৪৫ জনের নামে মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্ত শেষে পুলিশের তদন্ত কর্মকর্তা এসআই এনামুল হক একই বছরের ২৫ আগস্ট বিএনপি’র সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান, তারেক রহমানের ব্যক্তিগত সহকারি লুৎফর রহমান বাদল ও গাজীপুর সিটি মেয়র অধ্যাপক এমএ মান্নানের ছেলে মঞ্জুরুল আহসান রনিসহ বিএনপির ৩২ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। এরপর দীর্ঘদিন মামলা চলাকালে আসামীরা পলাতক থেকে আদালতে হাজিরা না দেয়ায় গত ৩০ এপ্রিল আদালত তারেক রহমান, লুৎফর রহমান বাদল ও মঞ্জুরুল হক রনিসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা (ড/অ) জারি করেন। গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মো. ফজলে এলাহী ভ’ইয়া এ গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী করেন।
যাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী করা হয়েছে তারা হলেন- তারেক রহমান, লুৎফর রহমান বাদল, মঞ্জুরুল আহসান রনি, মোঃ সোহেল, মোঃ ইমরান, হালিম সিকদার, ডাঃ আলী আকবর, মোঃ মোবারক হোসেন ও আঃ আজিজ।

About ক্রাইমবার্তা ডটকম

Check Also

সাতক্ষীরায় সবজি বাজারে আগুন ॥ বেকায়দায় ক্রেতা সাধারণ

ক্রাইমর্বাতা রিপোট:   সবজি বাজারের উত্তাপ দিনে দিনে বেড়েই চলেছে। বলা যায় বাজার ব্যবস্থা অস্থিতিশীলতার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *