জুন ২৮, ২০১৭
যে তিন গ্রামের মানুষের আয়ের প্রধান উৎস পতিতাবৃত্তি!
ক্রাইমবার্তা ডেস্করিপোর্ট

sexworker_141270: পতিতাবৃত্তি বা দেহব্যবসা বিশ্বের প্রায় সব দেশেই আছে। কোথাও প্রকাশ্যে, কোনো দেশে হয়তো তা চলে লুকিয়ে। তাই বলে পুরো তিন গ্রামবাসীর আয়ের প্রধান উৎস দেহব্যবসা! এমনটা হয়তো অনেকেই জানেন না বা কোনো শুনেননি। কিন্তু ভারতে ঠিক এমন তিন গ্রামের সন্ধান মিলেছে। যেখানে একটি দুটি নয়, পুরো তিন গ্রামের নারীরা পতিতাবৃত্তি করেই তাদের পরিবার পরিচালনা করেন।

ভারতের সেই তিন গ্রাম সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক-

১. নাতপুরা, উত্তরপ্রদেশ: উত্তর প্রদেশের নাতপুরা গ্রামের পাঁচ হাজার বাসিন্দার বসবাস। তাদের আয়ের মূল উৎস হল ‘পতিতাবৃত্তি’। গত চারশো বছর ধরে পরম্পরাগতভাবে পতিতাবৃত্তিকেই বেছে নিচ্ছেন তারা।

২. ওয়াদিয়া, গুজরাট: পরিবারকে চালানোর জন্য এ গ্রামের নারীরা পতিতাবৃত্তি করেন। পতিতাবৃত্তিতে নিয়োজিত নারীদের দালাল হিসেবে কাজ করে এ গ্রামের পুরুষরা। এ গ্রামের লোকদেরও আয়ের প্রধান উৎস পতিতাবৃত্তি।

৩. দেবদাসিস, কর্নাটক: কর্নাটকের দেবদাসিসের মেয়েদেরকে দেবীর সঙ্গে বিয়ে দেওয়া হয়। এরপর তাদের কুমারিত্বকে নিলামে তোলা হয়। এরপর থেকে সারাজীবন তাদেরকে পতিতা হয়েই কাটাতে হয়। এদেরও আয়ের মূল উৎস এই পতিতাবৃত্তি।

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


চেয়ারম্যান : আলহাজ্ব তৈয়েবুর রহমান (জাহাঙ্গীর) -----------------সম্পাদক ও প্রকাশক ----- ------ মো: আবু শোয়েব এবেল ....... ...মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪ ------------------------- -

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০, শহীদ নাজমুল সরণী,সাতক্ষীরা অফিস যোগাযোগ ০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com