জুলাই ৫, ২০১৭
সরকারী রাস্তা অবৈধভাবে দখল করে পাকাবাড়ী তৈরি হচ্ছে, এলাকার লোকজনের চলাচলে সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে।

ক্রাইমবার্তা রিপোট:যশোর বুরে‌্যা॥ যশোর সদর কচুয়া ইউনিয়নের সরকারী জমি দখলদার বাহিনীর দখলে রয়েছে দুইটি সরকারী রাস্তা। রূপদিয়া টু দাইতলা রাস্তার মাঝে আব্দুল ছাত্তারের পান বরোজ হইতে পশ্চিম দিক বিলের মধ্য দিয়ে কানা পুকুর পর্যন্ত ৪০০ ফুট জলমগ্ন ৭০ ফুট চওড়া ও রায়মানিক কচুয়া পালবাড়ী ব্রীজ হইতে হবিবারের বাড়ী পর্যন্ত ২৫০ ফুট রাস্তার উপরে কাচা পাকা বাড়ী তৈরি করে বসবাস করছে। সরকার অনুমোদন ছাড়া এলাকার লোকজনের সীমাহীন সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে। এলাকার সচেতন মহল রাস্তাটি দখলমুক্ত করার জন্য জেলা প্রশাসককে জানিয়েছে।সূত্রে জানা যায় যশোর সদর ১৩ নং কচুয়া ইউনিয়নের রায়মানিক কচুয়া খালকুল পাড়ার মৃত মোহর আলী মোল্যার পুত্র আনোয়ার হোসেন এরান এর নেতৃত্বে চলছে সরকারী রাস্তার জমি জবর দখলসহ নানা বিধ অপরাধ চক্রের সংগে জড়িত।sjswk
১৩ নং কচুয়া ইউনিয়নের খাল কুল পাড় ও পালপাড়া গ্রামের অধিবাসী বৃন্দ। রূপদিয়া বাজার হতে দাইতলা বাজারের সংযোগ সড়কের মাঝে ছাত্তারের পান বরজ হইতে সরকারী রাস্তা পশ্চিম দিকে মাঠের ভেতর হয়ে কানা পুকুর পর্যন্ত ৪০০ গজ রাস্তা ৭০ ফুট চওড়া রাস্তাটি অবৈধভাবে দখল করে চাষ করছে। এই মাঠের ধান পাঠ ও তরিতরকারী রাস্তায় আনতে হলে ঘাড়ে করে আনতে হয়। রাস্তাটা অতিজরুরী পালবাড়ী ব্রীজ হইতে হবিবারের বাড়ী পর্যন্ত ২৫০ ফুট রাস্তা লম্বা আড়ে ২৭ ফুট চেওড়া। অবৈধভাবে জবর দখল করে নিয়েছে রাস্তার উপর পাকা কাচা বাড়ী তৈরী করে বসবাস করছে প্রভাবশালীরা। চলাচল লোকজনের সীমাহীন সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে। রাস্তার উপর ঘর নির্মাণ করেছে ১। হবিবার শেখ, ২। মোঃ আব্দুল ছাত্তার (খুড়া), ৩। মোঃ আব্দুল মান্না মোল্ল্যা এবং কচুয়া খাল কুল পাড়া ও পালপাড়া ব্রীজের মাথা হতে ভৈরব নদী পর্যন্ত একটি জন বহুল ও বহুল ব্যবহৃত প্রায় ১০০ বছরের পুরাতন একটি রাস্তা কোথাও তিন কোথাও চার আবার কোথাও ১০ ফুট পর্যন্ত উচু করে বাধা হয়। অত্র অঞ্চলের সমস্ত লোকজন নদীতে গোসল করতে যায়, ফসল উঠানো ও নদীর অপর পাশের লোকজনের আশা যাওয়ার একমাত্র পথ। হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকের প্রতিমা বিসর্জন দেওয়ার জন্য এ রাস্তা ব্যবহার করা হয়। কিন্তু উক্ত রাস্তাটি বন্ধ করিয়া উপর মোঃ নজরুল ইসলাম জোর পূর্বক ঘর নির্মাণ করিতেছে। য্ াএলাকার লোকজনের সীমাহীন সমস্যার সম্মুখীন হতে যাচ্ছে।

Facebook Comments
Please follow and like us:
একই রকম সংবাদ


সম্পাদক ও প্রকাশক ----- ------ মো: আবু শোয়েব এবেল ....... ...মোবাইল: ০১৭১৫-১৪৪৮৮৪ ------------------------- -

ইউনাইর্টেড প্রির্ন্টাস,হোল্ডিং নং-০, দোকান নং-০, শহীদ নাজমুল সরণী,সাতক্ষীরা অফিস যোগাযোগ ০১৭১২৩৩৩২৯৯ e-mail: crimebarta@gmail.com